fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

এলআইসির নিয়োগ সংক্রান্ত মামলায় চাকরিপ্রার্থীরা যাতে বঞ্চিত না হন, দেখতে বলল হাইকোর্ট 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বায়োমেট্রিক কখনওই চূড়ান্ত তথ্য হতে পারে না। এলআইসি বিকল্প পদ্ধতি প্রয়োগ না কিভাবে চূড়ান্ত সিদ্ধান্তে উপনীত হলেন ? এলআইসির অ্যাসিস্ট্যান্ট পদে নিয়োগ সংক্রান্ত মামলায় প্রশ্ন তুলল কলকাতা হাইকোর্ট। পাশাপাশি, চাকরি প্রার্থীরা যাতে বঞ্চিত না হন জীবন বিমা কোম্পানিকে তাও দেখে সিদ্ধান্ত নিতে বললেন হাইকোর্টের বিচারপতি শুভাশীষ দাশগুপ্ত।মামলাকারীর আইনজীবী আশীষ কুমার চৌধুরী জানান, জীবন বিমা কোম্পানি (এলআইসি) তে ২৬৩ শূন্য পদে নিয়োগের জন্য গতবছর ১৭ সেপ্টেম্বর বিজ্ঞপ্তি জারি করে এলআইসি।

বর্ধমান ডিভিশনের জন্য শূন্য পদের সংখ্যা ১০০, কলকাতা মেট্রোপলিটন ডিভিশনের জন্য শূন্য পদ ৬০ এবং কলকাতা সুবাবর্ণ ডিভিশন এর জন্য শূন্যপদ ১০৩ জন নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি করেছিলেন। গতবছর ৩০ অক্টোবর প্রথম পরীক্ষা হয় সারা রাজ্যে। ৪ ডিসেম্বর ২০১৯ সালে ফাইনাল পরীক্ষা হয়।প্রথম এবং দ্বিতীয় পরীক্ষার ভিডিওগ্রাফি করা হয় যেখানে বায়োমেট্রিক পরীক্ষা, এবং পরীক্ষার্থীর ফটো প্রুফ এবং শিক্ষাগত যোগ্যতার তথ্য ভিডিওগ্রাফি করে রাখা হয়।

আরও পড়ুন:প্রধানমন্ত্রী কেন কোয়ারেন্টাইনে যাবেন না?‌ প্রশ্ন শিবসেনার

চলতি বছরের ১৪ জানুয়ারি চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হয়। যেখানে চাকুরী প্রার্থী সুপর্ণা সাধুখা  এবং সুরজিৎ পাল সহ অনেকেই সেই তালিকায় ছিলেন। ওই সকল সফল চাকরিপ্রার্থীদের মেডিকেল এবং ডকুমেন্ট ভেরিফিকেশন সফল হয়। ১৮ জানুয়ারি এলআইসি জানায় তারা সকলেই নিয়োগ পত্র পাওয়ার যোগ্য। চাকরিপ্রার্থীদের ট্রেনিংয়েও পাঠানো হয়। কিন্তু ৩১ জানুয়ারি ২০২০ সালে সুরজিৎ পাল, সুপর্ণা সাধুখা সহ বেশ কয়েকজন চাকরিপ্রার্থীদের বায়োমেট্রিক এর জন্য ফের ডাকা হয়। তাদের জানানো হয় বায়োমেট্রিক ম্যাচ করছে না, ফলে নিয়োগপত্র দেওয়া যাবে না। এলআইসির সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হন সুরজিৎ পাল, সুপর্ণা সাধুকা।তাদের আইনজীবী আশীষ কুমার চৌধুরীর দাবি, চূড়ান্ত তালিকায় নাম থাকার পর কর্তৃপক্ষ তাদের বাদ দিতে পারেন না।

কারণ তাদের পরীক্ষা নেওয়া বায়োমেট্রিক, ফটো আইডেন্টিটি সমস্ত কিছুই ভিডিওগ্রাফি করে রেখেছে কর্তৃপক্ষ। এতকিছু থাকার পরেও কিভাবে কর্তৃপক্ষ এই সিদ্ধান্তে উপনীত হলেন ? কারণ বায়োমেট্রিকই একমাত্র পরিচয় মাধ্যম হতে পারে না। সফল চাকরিপ্রার্থীরা হ্যান্ড রাইটিং এক্সপার্টকে দিও পরীক্ষা করতে পারে কর্তৃপক্ষ। তার জন্য প্রস্তুত সফল চাকুরী প্রার্থী রা। সে ক্ষেত্রে শুধুমাত্র বায়োমেট্রিক এর জন্য তাদের বঞ্চিত করা যাবে না। যদিও জীবন বিমা কোম্পানির পক্ষের আইনজীবী জানান বায়োমেট্রিক তাদের একমাত্র পদ্ধতি।

Related Articles

Back to top button
Close