fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বিজেপি নেত্রীর মানবিকতায় ৬ বছর পর বাড়িতে বিদ্যুৎ ফিরে পেল কাটোয়ার দিনমজুর পরিবার

দিব্যেন্দু রায়, কাটোয়া: মানবিক মুখ বিজেপি নেত্রীর। পূর্ব বর্ধমান জেলা (গ্রামীণ) সম্পাদিকা বিনীতা বড়ালের মহানুভবতায় ৬ বছর পর বাড়িতে বিদ্যুৎ ফিরে পেলেন কাটোয়ার শীলে গ্রামের এক জনমজুর পরিবার। ৬ বছর ধরে পড়ে থাকা বকেয়া বিল সুদে-আসলে প্রায় ১০ হাজার টাকা ছাড়িয়ে যায়। এত টাকা ওই দরিদ্র পরিবারের পক্ষে মেটানো কখনোই সম্ভব ছিল না। বিনীতাদেবী নিজেই ওই টাকা মিটিয়ে জনমজুরের বাড়িতে বিদ্যুৎ ফিরিয়ে দেওয়ার ব্যবস্থা করেন। শীলে গ্রামের বাসিন্দা প্রণব মাজির পরিবারকে বৃহস্পতিবার বিদ্যুৎ সংযোগ দিল বিদ্যুৎ দফতর।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, শীলে গ্রামের বাসিন্দা প্রণব মাজি পেশায় জনমজুর। বাড়িতে রয়েছেন স্ত্রী এক মেয়ে ও এক ছেলে। স্ত্রী মাধবীদেবীও জনমজুরি করেন। ছেলে মেয়ে পড়াশোনা করে। মাটির সাদামাটা বাড়ি। প্রণব মাঝি জানান, বছর আটেক আগে বিদ্যুৎ সংযোগ নিয়েছিলেন তিনি। ৬ বছর আগে তার বিদ্যুৎ বিল বকেয়া থেকে যাওয়ার কারণে বিদ্যুৎ দফতর থেকে বাড়ির সংযোগ কেটে দেওয়া হয়। সাড়ে পাঁচ হাজার টাকা জোগাড় করা সম্ভব হয়নি প্রণব মাজির পক্ষে। ফলে বিদ্যুৎহীন অবস্থায় কাটছিল তাদের।

প্রণব মাজি জানান, এরইমধ্যে দীর্ঘ কয়েক বছরে বকেয়া বিলের ওপর সুদ চেপে ১০ হাজার টাকা হয়ে যায়। বিনীতা দেবী কয়েকদিন আগে দলীয় কর্মসূচিতে গিয়েছিলেন শীলে গ্রামে। তখনই দলীয় কর্মীদের মুখ থেকে জানতে পারেন প্রণব মাজিদের এই বিষয়টি। জানা গিয়েছে, বুধবার কাটোয়া বিদ্যুৎ অফিসে গিয়ে প্রণব বাবুর বাড়ির বকেয়া বিদ্যুৎ বিল মিটিয়ে দেন বিজেপির নেত্রী। তারপর এদিন বৃহস্পতিবার প্রণব মাজির বাড়িতে পুনরায় বিদ্যুৎ সংযোগ দিয়ে দেয় বিদ্যুৎ দফতর। প্রণব মাজির কথায়, “বিনীতা ম্যাডামের এই উপকার আমি জীবনে ভুলবো না। আমরা ওনার কাছে চির ঋণী থাকবো।” বিনীতাদেবী বলেন,”ওই পরিবারটি খুব কষ্টে ছিল। ওদের পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করেছি মাত্র।”