fbpx
দেশবিনোদনহেডলাইন

রহমানের বিরুদ্ধে ৩ কোটি টাকার কর ফাঁকির অভিযোগ, নোটিশ পাঠালো মাদ্রাজ হাইকোর্ট

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক:  কর ফাঁকির অভিযোগে সুরকার এ আর রহমানকে নোটিস ধরাল মাদ্রাজ হাইকোর্ট। কর ফাঁকির অভিযোগ অভিযুক্ত সুরকার এ আর রহমান । তাঁর চ্যারিটেবল ট্রাস্ট থেকে ৩ কোটি টাকা কর ফাঁকি দেওয়ার অভিযোগ উঠে আসে। আয়কর বিভাগ মাদ্রাজ হাইকোর্টে যায় এবং এ আর রহমানের নামে অভিযোগ দায়ের করে। অভিযোগের ভিত্তিতে হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের বিচারপতি টি এস শিভাগনানাম এবং বিচারপতি ভি ভবানী সুব্বারোয়ান বিশিষ্ট শিল্পীর বিরুদ্ধে নোটিশ জারি করেন।

ব্রিটেনের একটি টেলিকম কোম্পানির জন্য গান কম্পোজ করে ৩.‌৪৭ কোটি পেয়েছিলেন রহমান। কিন্তু সেই টাকা সরাসরি নিজের অ্যাকাউন্টে নেননি তিনি। পরিবর্তে ওই টেলিকম সংস্থাকে বলেছিলেন, পুরো টাকাই তাঁর পরিচালিত সংস্থা ‘‌এআর রহমান ফাউন্ডেশন’-এর অ্যাকাউন্টে টাকা পাঠিয়ে দিতে। আয়কর দফতরের বক্তব্য, ‘রহমানের আয়ের ওপরই কর বসানো হবে। করের টাকা কেটে নেওয়ার পর চ্যারিটেবল ট্রাস্টে পাঠাতে পারেন তিনি।’‌

আরও পড়ুন: এবার মুখ্যমন্ত্রীর পদে বসতে চলেছেন রজনীকান্ত? তামিলনাড়ুতে পোস্টার ঘিরে জল্পনা

তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র পরামর্শক টিআর সেন্টিল কুমারের মতে, আয়কর, যা করযোগ্য, কেবলমাত্র ট্যাক্স ছাড়ের পরে ট্রাস্টে স্থানান্তরিত করা যেতে পারে এবং যে ট্যাক্স দিতে হবে তা ট্রাস্টের আয়ের অধীনে স্থানান্তর করা যায় না। এ আর রহমান ফাউন্ডেশন ২০০৯ সালে এআর রহমান এবং তাঁর পরিবার প্রতিষ্ঠিত একটি নন-প্রফিট সংস্থা। ফাউন্ডেশনটির উদ্দেশ্য সংগীত, শিক্ষার মাধ্যমে প্রত্যেকের, বিশেষত যারা এই সুবিধা থেকে বঞ্চিত তাদের জন্য সুযোগ তৈরি করা।

 

 

 

Related Articles

Back to top button
Close