fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

গণপতি উৎসব নিয়ে কড়া নির্দেশিকা জারি মহারাষ্ট্র সরকারের, বেধে দেওয়া হল প্রতিমার উচ্চতা

সর্বজনীন পুজো মণ্ডপে প্রতিমার উচ্চতা ৪ ফুট, বাড়ির পুজোয় ২ ফুট, বন্ধ বিসর্জন থেকে শোভাযাত্রা

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: পরিস্থিতি ক্রমশ হাতের বাইরে চলে যাচ্ছে। বিধিনিষেধ, সচেতনতা কোনও কিছু আটকাতে পারছে না এই মারণ ভাইরাসের দাপট। করোনা ভাইরাস তার মৃত্যুলীলা অব্যাহত রেখেছে। এদিকে নিয়ম করে আসছে পুজো পার্বণগুলি। কিন্তু করোনার দাপটে আজ সবই ফিকে।

মহারাষ্ট্রের গণেশ উৎসবের কথা কারুর অজানা নয়। নিজ রাজ্য তো বটেই দেশ, বিদেশ থেকে মানুষ এখানে ভিড় করে থাকে। তবে করোনা আবহে সব উৎসবই এবার ফিকে। কিন্তু মানুষের ভাবাবেগ, ধর্মীয় রীতিনীতি ও করোনা পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে ‘গণপতি উৎসবে’ এবার বেশ কিছুটা বিধিনিষেধ জারি করল মহারাষ্ট্র প্রশাসন। শনিবার রাজ্যের স্বরাষ্ট্র দফতরের পক্ষ থেকে নির্দেশ জারি করা হয়। সেখানে জানানো হয়েছে সর্বজনীন পুজো কমিটিগুলির মণ্ডপে চার ফুটের বেশি গণেশ মূর্তি রাখা যাবে না। ১০ দিনের উৎসব শেষে মূর্তি বিসর্জন দেওয়া যাবে না। মূর্তি বিসর্জনের জন্য কমপক্ষে আগামী ফেব্রুয়ারি মাস পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। কিংবা পরবর্তী বছর গণেশ চতুর্থীতে বিসর্জন দিতে হবে। তবে বাড়ির পুজোর ক্ষেত্রে বিসর্জনের উপরে কোনও বিধিনিষেধ থাকবে। এমনকী কোনও শোভাযাত্রাও হবে না এবছর।  আগামী ২২ অগস্ট থেকে গণপতি উৎসব শুরু হওয়ার কথা।

আরও পড়ুন:চতুর্দিকে শুধু মৃত্যুর কলরব! নেপালে বন্যা ও ভূমিধসে মৃত কমপক্ষে ৪০, নিখোঁজ ২৩

ইতিমধ্যেই মুম্বইয়ের বিখ্যাত লালবাগচা রাজা সর্বজনীন গণেশ উৎসব কমিটি মূর্তি পুজো বাতিল করে উৎসবের দিনগুলিতে রক্তদান উৎসবের আয়োজন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। করোনা আবহে আদৌ রাজ্য সরকার সর্বজনীন পুজো কমিটিগুলিকে উৎসব আয়োজনের অনুমতি দেবে কিনা তা নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছিল। তবে সেই সংশয়ের অবসান ঘটেছে। রাজ্যের স্বরাষ্ট্র দফতর জানিয়েছে, গণপতি উৎসব নিষিদ্ধ করা হচ্ছে না। তবে করোনা সংক্রমণের কথা মাথায় রেখে বেশ কিছু বিধিনিষেধ আরোপ করা হয়েছে। সর্বজনীন পুজোগুলির পাশাপাশি বাড়ির পুজোগুলিকেও কড়া বিধিনিষেধের মধ্যে রাখা হয়েছে। বাড়ির পুজোতে ধাতব কিংবা মার্বেলের গণেশ মূর্তি ব্যবহারের পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। তবে যারা মাটির গণেশ মূর্তিকে পুজো করবেন তাদের বাড়িতে কিংবা আশেপাশের কোনও পুকুরে ওই মূর্তি বিসর্জন দিতে হবে। বাড়ির পুজোয় গণেশ মূর্তির উচ্চতা যাতে দু’ফুটের বেশি করা যাবে না।

আরও পড়ুন:দীর্ঘ হচ্ছে তালিকা…৮ লাখের গন্ডি পার করল আক্রান্তের সংখ্যা, উদ্বেগে মহারাষ্ট্র, স্বস্তিতে দিল্লি

এছাড়াও সর্বজনীন পুজোর উদ্যোক্তারা বাড়িতে গিয়ে চাঁদা আদায় করতে পারবেন না। বিজ্ঞাপন ও স্বেচ্ছা অনুদান বাবদ যে অর্থ আসবে, তা দিয়েই উৎসবের আয়োজন করে এবছর পুজো করতে হবে।

Related Articles

Back to top button
Close