fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

লকডাউন আবহে অনুষ্ঠানের বদলে মন্দিরেই বিয়ে সারলেন পাত্র-পাত্রী

দুলাল সিংহ; দক্ষিণ দিনাজপুর: চলতি লকডাউন আবহে আড়ম্বর অনুষ্ঠানের বদলে মন্দিরেই বিয়ে সারলেন পাত্র-পাত্রী। বুধবার দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাট শহরের ব্রিজ কালী মন্দিরে সানাই-বাদ্যির আওয়াজ ছাড়াই বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হলেন বালুরঘাটের নামা বঙ্গী এলাকার পাত্র বিশ্বনাথ নাথ ও তিওড়-এর সিরাইল এলাকার পাত্রী শিল্পী সিং। লক ডাউন চলার কারনে এদিন পাত্র-পাত্রী দুজনেই মাস্ক পড়ে বিয়ে করেন। বিয়ের রীতিতে ছিল যেন লকডাউনের ছায়া। শুধুমাত্র মালা বদল ও সিদুর দানের মধ্যে দিয়ে মন্দিরে উপস্থিত পুরোহিতের কার্যত এক প্রকার সারসংক্ষেপ আকারে বৈদিক মন্ত্রোচ্চারণের মধ্য দিয়ে এদিন বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয় পাত্র বিশ্বনাথ দাস ও পাত্রী শিল্পী সিং।

জানা গেছে করোনা পরিস্থিতি তৈরীর আগে থেকেই বালুরঘাটের নামা বঙ্গী এলাকার পেশায় ব্যাবসায়ী বিশ্বনাথ দাস-এর সঙ্গে তিওড়ের সিরাইল এলাকার শিল্পী সিং-এর বিবাহ ঠিক হয়েছিল। কিন্তু এরপরে দেশ জুড়ে করোনা আবহে লক ডাউন চালু হওয়ায় কার্যত বিয়ে বন্ধ হওয়ার উপক্রম হয়। যার পরে পাত্র পক্ষ ও পাত্রী পক্ষ সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে বালুরঘাটের ব্রিজ কালী মাতার মন্দিরে বিবাহের সিদ্ধান্ত নেয়।

আরও পড়ুন: আজ বিশ্ব ধরিত্রী দিবস কোরোনাই পরোক্ষে দিনটির লক্ষ্যপূরণ করেছে

বালুরঘাটের ব্রিজ কালী মাতা মন্দিরের পুরোহিত প্রসাদ চক্রবর্তী জানিয়েছেন তাকে প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল শুধুমাত্র নামমাত্র নিয়ম মেনে বিয়ে দেওয়ার। সেই মত তিনি শুধু মালাবদল ও সিদুর দানের মধ্য দিয়ে পাত্র পাত্রীর বিয়ে দিয়েছেন বলে জানিয়েছেন। স্থানীয় বাসিন্দা শিখা মহন্ত সাহা চৌধুরী জানিয়েছেন সরকারের সমস্ত বিধিনিষেধ মেনে বিনা আড়ম্বরে শুধুমাত্র ফুলমালা-সিদুর দিয়ে কয়েকজনের তত্বাবধানে এই বিয়েটা সম্পন্ন হয়েছে। অপরদিকে পাত্র বিশ্বনাথ দাস জানিয়েছেন বর্তমান পরিস্থিতি বিচার করে তারা এইভাবে বিয়ে করেছেন।

Related Articles

Back to top button
Close