fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

ফের দেশীয় প্রযুক্তির ওপর জোর মোদি সরকারের, মোবাইল আর গাড়ির ব্যাটারির জন্য খরচা হবে ৭১ কোটি টাকা

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: এবার ভারতেই তৈরি হবে মোবাইল আর গাড়ির ব্যাটারি তৈরির কারখানা। এই বাবদ কেন্দ্রীয় সরকার খরচা করছে ৭১ হাজার কোটি টাকা। বৈদ্যুতিক যানবাহন এবং জ্বালানী সঞ্চয় করার জন্য মোদি সরকার জাতীয় ব্যাটারি নীতি প্রস্তুত করছে। নীতি বাস্তবায়নের জন্য ভারী শিল্প মন্ত্রক দায়বদ্ধ থাকবে। জ্বালানী তেলের উপর নির্ভরতা কমাতে আর দূষণ নিয়ন্ত্রণ করতে কেন্দ্রীয় সরকার এই পদক্ষেপ নিচ্ছে। এছাড়াও দেশে ইলেক্ট্রিক যান-বাহন আরও বেশী মাত্রায় চালু করতে সরকার এই পদক্ষেপ নিচ্ছে। এখনও ম্যানুফ্যাকচারিং আর চার্জিং স্টেশনের পরিকাঠামোতে বিনিয়োগ করা হচ্ছে না। বিশ্বের দ্বিতীয় সর্ববৃহৎ জনসংখ্যার দেশে এখনও পর্যন্ত মাত্র ৩ হাজার ৪০০ ইলেক্ট্রিক গাড়ি বিক্রি হয়েছে।

আরও পড়ুন- প্রবল বৃষ্টি, হায়দরাবাদে দেওয়াল ধসে ২ মাসের শিশু সহ মৃত ৯

জাতীয় ব্যাটারি পলেসি অনুযায়ী দশ বছরে ৭১ হাজার কোটি টাকার খরচ করার প্রস্তাব রাখা হয়েছে। ২০৩০ এর মধ্যে ৬০৯ গিগাওয়াট শক্তি সঞ্চয়স্থান করার অনুমান করা হয়েছে। ২০২৫ এর মধ্যে ৫০ গিগাওয়াট এনার্জি স্টোরেজের ক্ষমতা সৃষ্টি করার লক্ষ্য রাখা হয়েছে।

এক রিপোর্ট অনুযায়ী খুব শীঘ্রই এটিকে ক্যাবিনেটের কাছে মঞ্জুর জন্য পাঠানো হব। এর মাধ্যমে ভারত লিথিয়াম আয়ন ছাড়া সব রকমের অ্যাডভান্স কেমিস্ট্রি সেল তৈরি করার জন্য গিগা কারখানাগুলোকে ইনসেন্টিভ দেবে।

সরকারের তরফ থেকে দেওয়া এই ইনসেন্টিভ যোজনার মাধ্যমে ব্যাটারি বানানো দক্ষিণ কোরিয়ার এলজি কেমিক্যাল আর জাপানের প্যানাসনিক কর্পের সুবিধা হতে পারে। এছাড়াও ভারতে বৈদ্যুতিন যানবাহন বানানো কোম্পানি টাটা মোটরস আর মহিন্দ্রা অ্যান্ড মহিন্দ্রা ও সুবিধা উপভোগ করতে পারবে।

 

Related Articles

Back to top button
Close