fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

কর্মীদের জন্য বিশেষ বাস পাঠাচ্ছে পুরসভা

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: আজ থেকে রাজ্যে ৭০ শতাংশ কর্মী নিয়ে চালু হয়েছে সরকারি ও বেসরকারি কর্মক্ষেত্র। তবে কলকাতা পুরসভায় ১০০ শতাংশ হাজিরা বাধ্যতামূলক। আনলকের প্রথম দিন পুরকর্মীদের বেশিরভাগ অফিসে গেলেও অসুবিধা হয়েছে তাঁদের। এই অসুবিধার কথা শুনে পুরসভার মুখ্য প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম জানিয়েছেন, এবার থেকে কলকাতার বাইরের কর্মীদের জন্য নির্দিষ্ট কয়েকটি পয়েন্টে বাস পাঠাবে পুরসভা। সেখান থেকে তাঁদের নিয়ে আসা হবে এবং কাজ শেষে পৌঁছে দেওয়া হবে।

সোমবার দুপুরে তিনি জানান, পুরকমিশনার বিনোদ কুমারের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে। তাঁকে বলেছি কলকাতা পুরসভা যদি কয়েকটি রুটে বাসের ব্যবস্থা করতে পারে, তাহলে ভাল হয়। কারণ, এখন ট্রেন যেমন চলছে না, তেমনি গাড়িঘোড়াও অপ্রতুল। তাই কলকাতা পুরসভার কর্মীদের কর্মস্থলে আনতে বেশ কিছু রুটে বাস চালালে তাতে সুবিধাই হবে।আপাতত কর্মীদের আনতে যে কটি জায়গায় বাস পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে পুরসভা, সেগুলি মূলত কলকাতা লাগোয়া চার জেলা – হাওড়া, হুগলি, উত্তর ২৪ পরগনা ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা। কোন জেলার কোন পয়েন্টে বাস যাবে, তা একঝলকে দেখে নেওয়া যাক – উত্তর ২৪ পরগনা – বারাকপুর, বারাসত, মধ্যমগ্রাম। দক্ষিণ ২৪ পরগনা – বারুইপুর, সোনারপুর। হাওড়া – উলুবেড়িয়া, শিবপুর। হুগলি – শ্রীরামপুর, উত্তরপাড়া, চন্দননগর।

আরও পড়ুন: সংক্রমণ ঠেকাতে, ৩০ জুন পর্যন্ত লকডাউনের মেয়াদ বাড়ালেন মমতা, জেনে নিন কোন কোন ক্ষেত্রে মিলবে ছাড়

পুরসভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, এই জায়গাগুলি থেকে কর্মীদের বাসে নিয়ে আসা হবে। কারও বাড়ির সামনে আলাদা করে বাস যাবে না। নিজেদের বাড়ি থেকে সকলে এই পয়েন্টগুলিতে জমায়েত হবেন। সেখান থেকেই বাসে উঠবেন। এ বিষয় কলকাতা পুরসভার মুখ্য প্রশাসক ফিরহাদ হাকিম বলেন, ‘লোকাল ট্রেন বন্ধ এখন। অন্যান্য গণপরিবহণ পেতেও একটু সমস্যা হচ্ছে। তাই এসব ঠিক না হওয়া পর্যন্ত কর্মীদের জন্য এই ব্যবস্থা করা হয়েছে। কারণ, নাগরিক পরিষেবা দিতে গেলে ১০০ শতাংশ কর্মী প্রয়োজন।’

পুরসভার বিভিন্ন বিভাগীয় প্রধানদের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে, কোন কর্মী কোথা থেকে আসছেন, তার একটা তালিকা তৈরি করতে। তালিকাটি পুরসভার স্পেশ্যাল কমিশনারের কাছে জমা পড়বে। সেই অনুযায়ী বাস পাঠানোর ব্যবস্থা হবে বলে পুরসভা সূত্রে খবর।

Related Articles

Back to top button
Close