fbpx
গুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

করোনা আক্রান্তের সংখ্যা উর্দ্ধমুখী, তালা পড়ল পূর্ব বর্ধমান জেলা পরিষদে

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়, বর্ধমান: করোনা সংক্রমণ বেড়ে চলায় এবার তালা পড়ল পূর্ব বর্ধমান জেলাপরিষদে।বুধবারই জেলাপরিষদ ভবনে তালা পড়ে যায়।আগামী সাতদিন জেলাপরিষদ ভবন তালা বন্ধ থাকবে সভাধিপতি জানিয়ে দিয়েছেন। প্রশাসন ও স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, রাজ্যের অন্যান্য জেলার পাশাপাশি পূর্ব বর্ধমানেও করোনা আক্রান্তের সংখ্যা লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়ে চলেছে। কনটেইনমেন্ট  জোন ৮০ থেকে বাড়িয়ে ১৭১ টি করেও আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধি রোখা যাচ্ছে না।

বুধবারও জেলায় ১৩ জনের করোনা পজিটিভ ধরা পড়েছে। তার মধ্যে রয়েছে কালনা পৌরসভা এলাকার তিন বছর বয়সী একটি শিশু। এদিন পর্যন্ত জেলায় ৪৭৮ জনের করোনা পজিটিভ ধরা পড়েছে।করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে জেলার ৫ জনের। চিকিৎসাধীন রয়েছেন।বর্ধমান মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের ৭ চিকিৎসক ও ১ স্বাস্থ্য কর্মীর করোনা পজিটিভ ধরা পড়েছে । জেলা পুলিশের দুই শীর্ষস্থানীয় কর্তা ছাড়াও মাধবডিহি ও খণ্ডঘোষ থানার দুই শীর্ষ কর্তাও করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।

আরও পড়ুন:গণধর্ষণের ঘটনায় উত্তপ্ত বসিরহাট, ঘটনাস্থলে পুলিশ ও কমব্যাট ফোর্স

এদিন প্রকাশ্যে আসে জেলা পরিষদের সহসভাধিপতি দেবু টুডুর নিরাপত্তা রক্ষী ছাড়াও জেলার পুলিশ সুপার ভাস্কর মুখোপাধ্যায় রায়না, মেমারি ও ভাতারের বিধায়কদের রক্ষীরও করোনা পজিটিভ ধরা পড়েছে। এরপরেই তড়িঘড়ি বন্ধ করে দেওয়া হয় জেলাপরিষদ ভবন।
করোনা সংক্রমণ বেড়ে চলায় বর্ধমান শহরের ৩৫ টি ওয়ার্ডে এদিন থেকে ২৯ জুলাই পর্যন্ত লকডাউন জারি করা হয়েছে। লকডাউন পুরো মাত্রায় কার্যকর করতে কঠোর ভূমিকা নিয়ে পথে ঘুরছে পুলিশ। আগামী বৃহস্পতিবার ও শনিবার রাজ্য জুড়ে যে লকডাউন জারি করা হয়েছে তাও পুরোপুরি কার্যকর করতে তৎপর পূর্ব বর্ধমান জেলা পুলিশে।

জেলা পরিষদের সভাধিপতি শম্পা ধাড়া এদিন বলেন আপাতত সাতদিনের জন্য বন্ধ করে দেওয়া হল জেলারিষদ ভবন।
শম্পা ধারা জানান, তিনি হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকবেন। সহসভাধিপতি দেবু টুডু বলেন, তার নিরাপত্তা রক্ষীর করোনাপজিটিভ ধরা পড়েছে। সেই কারণে স্বপরিবারে তিনি কোভিড টেস্ট করাবেন।

Related Articles

Back to top button
Close