fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

কোলাঘাটের ভাঙা লকগেট সারানোর দাবি রূপনারায়ণবাসীর

ভাস্করব্রত পতি, তমলুক : লকগেট ভাঙা। ক’দিন আগেই ভরা জোয়ারে রূপনারায়নের জল বুকে ভাসিয়েছে কোলাঘাটকে।  ইংরেজ আমলে তৈরি সেই ভাঙা লকগেট অবিলম্বে মেরামত করে  করার দাবিতে পূর্ব মেদিনীপুর জেলা বন্যা-ভাঙন-খরা প্রতিরোধ কমিটির পক্ষ থেকে সেচ দফতরের জেলার অধীক্ষক বাস্তুকার গুরু পদ ঘোষ, নির্বাহী বাস্তুকার অনির্বাণ ভট্টাচার্য এবং পাঁশকুড়া -১ সাবডিভিশনের এস.ডি.ও. ললিত চৌধুরীকে স্মারকলিপি দেওয়া হল।

রূপনারায়ণের কোলাঘাট নতুন বাজারের সন্নিকটে নদীবাঁধে সেচ দফতরের একটি লকগেট দিয়ে গত পরশুদিন পূর্ণিমার ভরা কোটালে নতুন বাজার সংলগ্ন বেশ কিছু বাড়ি এবং দোকানে জল ঢুকে গিয়েছিল। কমিটির সম্পাদক নারায়ন চন্দ্র নায়ক বলেন,দীর্ঘদিন সেচ দপ্তর ওই অকেজো লকগেটটি না সারানোয় এই বিপত্তি হয়েছে। এক সময় এই লকগেট দিয়ে বর্ষার সময় কোলাঘাটের বড়িশা, কুখাবাড়, বাড়বড়িশা, কোলা ইত্যাদি এলাকার জল নির্গত হতো রূপনারায়ণ নদে। আর অন্যান্য সময় রূপনারায়ণের জোয়ারের জল বিভিন্ন খাল পথে এলাকায় যেতো।

আরও পড়ুন: প্রায় তিনমাস বন্ধ থাকার পরে আনলক -১ এ খুললো মাইথন, চলছে স্যানিটাইজেশন
যা মূলত চাষের কাজে লাগতো। কিন্তু বিগত পাঁচ বছর ধরে লকগেটটির দরজা ভেঙে গিয়েছে। ফলে রূপনারায়ণের জল জোয়ার এলেই ঢুকে পড়ে ভাঙ্গা লকগেট দিয়ে কোলাঘাটের নতুন বাজার এলাকায়। আর সাধারণ মানুষ দুর্দশায় পড়ে। ঐ স্মারকলিপি পেয়ে সেচ দপ্তরের এস.ডি.ও. স্লুইশগেটটি পরিদর্শনে আসেন এবং বর্ষার পূর্বেই সারানোর ব্যবস্থা করার নির্দেশ দেন ঠিকাদারকে।

Related Articles

Back to top button
Close