fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বালি মাফিয়াদের দাপট, সব কিছু জেনেও নিশ্চুপ পুলিশ প্রশাসন, অভিযোগ গ্রামবাসীদের

তারক হরি, পশ্চিম মেদিনীপুর: অবৈধভাবে বালি তোলার প্রতিবাদে বৃহস্পতিবার  সকাল থেকে বালি বোঝাই ট্রাক আটকে বিক্ষোভ দেখাতে থাকল গ্রামবাসীরা। ঘটনাটি পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার খড়গপুর লোকাল থানার অন্তর্গত গুমরিয়াপাল এলাকার ঘটনা। এলাকার মানুষদের ক্ষোভ যে তাঁরা দীর্ঘদিন ধরে পুলিশ প্রশাসনকে জানিয়েও কোনো লাভ হচ্ছে না, তাই বাধ্য হয়ে তাঁরা বিক্ষোভ অবস্থানে নেমেছেন। কংসাবতী নদীর একেবারে গা ঘেঁষে গ্রাম হল এই ঘুমরিয়াপাল। গ্রামের নদীর পাশের ধারে স্তুপাকৃত বালি জে সি বি মেশিন দিয়ে তুলে নেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ গ্রামবাসীদের। যা সম্পূর্ণ বেআইনিভাবে হচ্ছে বলেই জানা গিয়েছে। গ্রামের একাংশের দাবি যে স্থানীয় তৃণমূল নেতা রাজীব কারক নিজের আধিপত্য বিস্তার করেছেন বালি মাফিয়াদের হাত ধরে তাই পুলিশ প্রশাসনকে বলেও কোন কাজ হচ্ছে না। যেহেতু শাসক দলের নেতা তাই নিজের ক্ষমতা অপব্যবহার করে গ্রামের মানুষকে ভয় দেখিয়ে দিনের-পর-দিন বেআইনিভাবে বালি তুলে নিয়ে যাচ্ছেন জেসিবি দিয়ে।

[আরও পড়ুন- করোনা আতিমারির কারণে দুর্গা বন্দনায় ভিড় এড়াতে কড়াকড়ি বর্ধমানে]

প্রশাসনের একাংশ জানলেও তারা কোনো কাজ করেনি বলে অভিযোগ করছে এলাকার স্থানীয় মানুষেরা। বরঞ্চ অভিযোগ জানালে অযথা পুলিশি হয়রানি অথবা মারধর করা হয় গ্রামের মানুষকে এমনও দাবি করছে কিছু গ্রামবাসী। যেখানে স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যখন বালি মাফিয়াদের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন, ঠিক সেই সময়ই খড়্গপুরের মতো এলাকায় কিছু বালি মাফিয়া আজও প্রশাসনের একাংশের মদতে ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছেন বলে অভিযোগ করে বিক্ষোভ দেখালেন গুমরিয়াপাল গ্রামের বাসিন্দারা। তবে এই গ্রামবাসীদের অভিযোগের ভিত্তিতে স্থানীয় প্রশাসন কতটা কার্যকরী ব্যবস্থা নেয় সেটাই এখন দেখার বিষয়।

 

Related Articles

Back to top button
Close