fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

টাকি রোড ও বাসন্তী হাইওয়েতে চণ্ডীপাঠ করে মিছিল পুরোহিতদের

শ্যাম বিশ্বাস, উত্তর ২৪ পরগনা: দুর্গাপুজোর প্রাক্কালে চণ্ডীপাঠ, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নামে জয়ধ্বনি ব্রাহ্মণ সমাজের। বসিরহাট মহকুমার মিনাখা বাসন্তী হাইওয়ে ও মাটিয়া থানার টাকি রোডের পুরোহিতরা মহা মিছিল করে। রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘোষণা করেছিলেন ৮০০০ সনাতনী ব্রাহ্মণ পুরোহিতদের মাসিক ভাতা ১০০০ টাকা করে দেবেন। পাশাপাশি বাংলা আবাস যোজনার ঘর পাবেন যাদের ঘর নেই। এই নির্দেশ জারি করার পর গোটা বাংলা জুড়ে পুরোহিত সমাজের মধ্যে বাংলা সম্প্রীতির সুর শোনা যাচ্ছে। যেখানে মুসলিম সমাজের ইমামদের জন্য সাম্মানিক ভাতা চালু করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। প্রশ্ন ছিল যে, পুরোহিত সমাজ কেন বঞ্চিত হবে। তার‌ই পেক্ষাপটে বাংলা যে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির মেলবন্ধন, তার প্রমান করলেন প্রশাসনিক প্রধান।

[আরও পড়ুন- বিদেশের মাটিতে পাড়ি দিল কৃষ্ণনগরের দুর্গা প্রতিমা]

তিনি পুরোহিতদের জন্য ভাতার ব্যবস্থা করেছেন, তাই আজকে গোটা বাংলায় সব ধর্মের সম্প্রীতির সুর উঠেছে। এক দিকে সামনে দুর্গাপুজো, দেবী দুর্গার চণ্ডীপাঠ, অন্যদিকে মমতা বন্দোপাধ্যায়ের নামের জয়ধ্বনি শুরু করেছে সনাতনী ব্রাহ্মণ এর বাংলার পুরোহিতরা। রবিবার সকাল দশটা নাগাদ বাসন্তী হাইওয়ে ও টাকি রোডের উপরে কয়েক হাজার পুরোহিতদের মাইক নিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পক্ষে প্রচার করেন। চণ্ডীপাঠ জয়ের ধনী মধ্য দিয়ে ঢাক ঢোল কাশি বাজিয়ে এই প্রচার করা হয়।

দুই ব্লক মিলিয়ে প্রায় কুড়ি কিলোমিটার পথ যাত্রা করে পুরোহিতরা। মিছিলের উদ্যোক্তা মিহির ঘোষ ও পুরোহিত দেবাশীষ ভট্টাচার্য্য বলেন, এই বাংলায় সব ধরনের মানুষ বসবাস করেন। এটা সম্প্রীতির বাংলা। এখানে কোনও হানাহানি নেই। এখানে আমরা সব সম্প্রদায়ের মানুষ একসঙ্গে বসবাস করি। তাই  মাননীয়ার এই ধরনের উদ্যোগ নেওয়ার জন্য গোটা ব্রাহ্মণ সমাজ ওনার পাশে আছে এবং থাকবে।

 

Related Articles

Back to top button
Close