fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

হাতির আতঙ্ক ঘুম কেড়েছে শিলিগুড়ির ঘোগোমালির বাসিন্দাদের

কৃষ্ণা দাস, শিলিগুড়ি: শহরের বুকে তিনটি হাতি বের হওয়ার ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। বৈকুন্ঠপুর জঙ্গল থেকে এদিন ভোর রাতে শিলিগুড়ি সংলগ্ন তেলিপাড়া দিয়ে আশিঘর হয়ে হাতি তিনটি শিলিগুড়ি পুরসভার ৩৭ নম্বর ওয়ার্ড ঘোগোমালিতে চলে আসে। স্থানীয় বাসিন্দারা আওয়াজ শুনে জেগে উঠে বাড়ির জানালা দিয়ে হাতি তিনটিকে দেখতে পায়। লোকালয়ে এভাবে হাতি চলে আসায় রীতিমতো আতঙ্কিত হয়ে পড়ে স্থানীয়রা। খবর দেওয়া হয় পুলিশ ও বনদফতরে। ঘটনাস্থলে ছুটে আসে ডাবগ্রাম ও শালুগাড়া রেঞ্জের বনকর্মীরা সহ আধিকারিকরা ও আশিঘর ফাঁড়ির পুলিশ। তেমন কোনও ক্ষয়ক্ষতি ছাড়াই হাতিগুলো তাদের সমবেত প্রচেষ্টায় ফের বৈকুন্ঠপুর জঙ্গলে ফিরে যায়।

স্থানীয়রা জানান, ভোর রাতে প্রচন্ড আওয়াজ ও কুকুরের চেঁচামেচিতে তারা জেগে উঠে দেখেন এলাকায় তিনটি হাতি ঘুরে বেড়াচ্ছে। ভয়ে ও আতঙ্কে বাড়ির বাইরে কেউ বের হতে সাহস পাননি। খবর দেওয়া হয় বনদফতর ও পুলিশে।

আরও পড়ুন:সক্রিয় মৌসুমী অক্ষরেখার প্রভাবে বৃষ্টি বঙ্গে

স্থানীয় বাসিন্দা সাগরিকা বসাক জানান, হাতি তিনটি তাদের বাড়ির গেট ভেঙে রান্না ঘরও কিছুটা ভেঙে দেয়। অন্যদিকে এলাকার কনটেমেন্ট জোনের জন্য রাস্তায় বাঁশের ব্যারিকেড করে দেওয়া হয়েছিল। সেই ব্যারিকেড ভেঙে রাস্তা তৈরি করে হাতি তিনটি একটি বাগানে ঢুকে পড়ে। সেখানে কলাগাছ খেয়ে কিছু গাছপালা তছনচ করে। রাজু সূত্রধর নামে আর এক বাসিন্দা জানান, তিনি বাড়ির জানালা দিয়ে স্বচক্ষে তিনটি হাতি দেখতে পান। যদিও হাতি তিনটি তেমন কোনও তান্ডব চালায়নি বলে বাসিন্দারা জানায়। প্রসঙ্গত, উল্লেখ্য বৈকুন্ঠপুর জঙ্গল থেকে সম্প্রতি সন্ধ্যার সময় একটি হাতি চলে এসেছিল লোকালয়ে।  সেসময় স্থানীয়রা জেগে থাকার কারণে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়েছিল।

পরে বনদফতর হাতিটিকে জঙ্গলে তাড়িয়ে নিয়ে যায়। তারও বেশ কিছুদিন আগে একটি হাতি শহরের একেবারে উপকন্ঠে চলে আসে তখন সেই হাতিটিকে জঙ্গলমুখি করতে বনদফতর ও পুলিশ প্রশাসনকে অনেক কসরৎ করতে হয়। তবে এবার রাত গভীর থাকায় মুষ্টিমেয় কয়েকজনই হাতি চলে আসার ঘটনা জানতে পারেন। আর হাতিগুলিও শহরে তেমন কোনও তান্ডব না চালিয়ে আপন মনে শহরে এসে আপন মনেই ফের লোকালয় ছেড়ে জঙ্গলে চলে যায়। এদিকে শহর শিলিগুড়ি সংলগ্ন বৈকুন্ঠপুর জঙ্গল।  সেই জঙ্গল থেকেই মাঝে মধ্যে এলাকায় হাতি চলে আসার খবর পাওয়া যায়। তবে  শহরের মধ্যে এভাবে একসঙ্গে তিনটি হাতি চলে আসার ঘটনা সাম্প্রতিক অতীতে ঘটেনি বলেই স্থানীয়দের বক্তব্য। এই ঘটনায় শহরবাসী আতঙ্কিত।

আরও পড়ুন:করোনায় দুর্নীতি! স্বাস্থ্য মন্ত্রীর ইস্তফা ও স্বাস্থ্য অধিদফতরের ডিজির বিচার চায় বিএনপি

এ ব্যাপারে ডাবগ্রাম রেঞ্জের রেঞ্জার শ্যামাপ্রসাদ চাকলাদার বলেন, “রাত দুটো নাগাদ বৈকুন্ঠপুর জঙ্গল থেকে তিনটে হাতি বেড়িয়েছিল। দুটি দাতাল হাতি ও একটি বাচ্চা হাতি। হাতি তিনটি তেলিপাড়া হয়ে ঘোগোমালি চলে আসে। খবর পেয়ে ডাবগ্রাম রেঞ্জ ও সালুগাড়া রেঞ্জের সবাই ছুটে যাই সঙ্গে আশিঘর ফাঁড়ির পুলিশ ছিল। হাতি তিনটি একটি বাগান বাড়িতে ঢুকেছিল। ওকে গাইড করে আবার আমরা জঙ্গলে ফিরিয়ে দেয়।

 

Related Articles

Back to top button
Close