fbpx
কলকাতাহেডলাইন

রাজ্যের পরিস্থিতি রাষ্ট্রপতি শাসনের দিকে এগোচ্ছে: সায়ন্তন বসু

শরণানন্দ দাস, কলকাতা: রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য করলেন  রাজ্য বিজেপির সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু। বৃহস্পতিবার রাজ্য বিজেপি দফতরে সাংবাদিক বৈঠকে তিনি বলেন, ‘ রাজ্যের পরিস্থিতি রাষ্ট্রপতি শাসনের দিকে এগোচ্ছে।’
তিনি তৃণমূলের দিকে অভিযোগের আঙুল তুলে বলেন, ‘ রাজ্যে রাজনৈতিক খুন পুলিশ, তৃণমূলের হার্মাদরা যৌথভাবে করছে এ বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই। আমরা বিজেপি মনে করি এই সরকার অক্ষম সরকার, প্রশাসন চালানোর অধিকার হারিয়েছে। এই সরকার থাকা মানে আরও মায়ের কোল খালি হবে। পরিস্থিতি আরও খারাপের দিকে যাবে।’ তিনি বলেন, ‘আমাদের ১২৩ জন কার্যকরিতা খুন হয়েছেন, একজনের শাস্তি হয়নি। সে সন্দেশখালির গণহত্যা বলুন, বীরভূমের ঘটনা কিম্বা সাম্প্রতিক খুনের ঘটনা বলুন। যে সরকার লাশ গুম করে দেয়, মৃতদের দিতে চায়না সেই সরকারের আর একমুহূর্ত ক্ষমতায় থাকার অধিকার নেই। আমরা মনে করি রাজ্যের যা পরিস্থিতি তাতে রাষ্ট্রপতি শাসনের দিকে এগোচ্ছে।’
কেন তিনি এমনটা বলছেন? তার ব্যাখ্যায় তিনি বলেন, ‘ পুজোর উৎসবের সময়েও তৃণমূলের হার্মাদ বাহিনীর হাতে আমাদের ৫ জন কার্যকরিতা খুন হয়েছেন। তাঁদের অপরাধ তাঁরা বিজেপি করতেন। অষ্টমীর রাতে জগদ্দলে ও বাগনানে আক্রান্ত হয়েছিলেন মিলন হালদার ও কিঙ্কর মাজি। বুধবার তাঁরা দুজনেই হাসপাতালে মারা গিয়েছেন। গত দশমীর দিন উদ্ধার হয়েছে বাচ্চু ফেরার ঝুলন্ত মৃতদেহ। দুর্গাপুজোর মুখে পিটিয়ে মারা হয়েছে রবীন্দ্রনাথ মণ্ডলকে। তাঁর কয়েকদিন আগে পুলিশ তুলে নিয়ে গিয়ে মেরেছে মদন ঘড়ূইকে। তৃণমূলের নেতারা কথায় কথায় উত্তর প্রদেশের তুলনা টানেন। ওঁরা বলতে পারবেন নবরাত্রির সময়ে ওখানে সমাজবাদী, বহুজন সমাজবাদী, কংগ্রেসের কেউ খুন হয়েছেন?’
তিনি আরও বলেন, ‘ মদন ঘড়ুইয়ের শবদেহের দ্বিতীয়বার ময়নাতদন্ত এখনও হলো না, অনুপ রায়ের মরদেহের ফের ময়নাতদন্ত এখনও হলো না। এই সরকার আদালতের নির্দেশ মানে না। রাজ্যপাল যদি এই বিষয়ে কোন মন্তব্য করেন তাহলেই তৃণমূল তেড়ে আসছে।’
এই প্রসঙ্গে তিনি রাজ্যের এক মন্ত্রীর মন্তব্যের কড়া সমালোচনা করেন। তিনি বলেন, ‘ ভাবুন কতোটা অমানবিক! ওদের এক মন্ত্রী বলেছেন বিজেপি এখন মশা মরলেও রাজ্যপালের কাছে গিয়ে হৈচৈ করে। ভেবে দেখুন নিহত বিজেপি কার্যকর্তারা ওদের কাছে মশা! এতো অমানবিক হন কী করে? এই মানসিকতা নিয়ে রাজনীতি করতে এসেছেন? সেই কারণেই বলছি এই সরকারের আর এক মুহূর্তও ক্ষমতায় থাকার নৈতিক অধিকার নেই।’

Related Articles

Back to top button
Close