fbpx
দেশহেডলাইন

ছেলে করোনায় মৃত, কিন্তু ৯৩ বছরের বৃদ্ধা মা সুস্থ হলেও ফেরত নিতে অস্বীকার পরিবারের

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: ছেলে করোনায় মৃত, কিন্তু ৯৩ বছরের বৃদ্ধা মা করোনাকে হারিয়ে সুস্থ হয়ে উঠলেও তাকে ফেরত নিতে অস্বীকার করল পরিবার। মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে হায়দরাবাদের গান্ধীনগরে। জানাগেছে, বৃদ্ধার পরিবারের ছেলে ও দুই নাতিও করোনা আক্রান্ত হয়েছিল ৷ হাসপাতালেই করোনা আক্রান্ত ছেলে মারা যায় ৷ দুই নাতি অবশ্য এই অবস্থায় সেরে গিয়ে কোয়ারেন্টাইনে আছেন৷

বিভিন্ন রাজ্যে করোনা মোকাবিলায় বিভিন্ন নিয়ম পালন করা আবশ্যিক করে দিয়েছে ৷ এই অবস্থায় হাসপাতাল করোনামুক্ত রোগীদেরও বাড়ি ফিরে যাওয়ার পর ১৪ দিনের জন্য হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দিয়েছে ৷ করোনা টেস্ট কারওর পজিটিভ হলেই রোগীদের ভর্তি করা হয় হাসপাতালে ৷ আসলে বৃদ্ধা সেরে উঠলেও বাড়ি ফেরার পর তাঁকে ১৪ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হত ৷

আরও পড়ুন: ভারত-চিন দ্বন্দ্ব, ২২ জুন থেকে থমকে রয়েছে চিনা পণ্যের আমদানি

হাসপাতালের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, রোগীরা সেরে যাওয়ার পরে আর করোনা টেস্ট হয় না৷ তাই তারা সতর্কতাবশত তাদের কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরামর্শ দেন ৷ এদিকে এই বৃদ্ধামহিলার ক্ষেত্রেও সেই একই বিষয় হয়েছিল ৷ কিন্তু হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ দ্বিতীয়বার টেস্ট করার জন্য তৈরি ছিল না ৷

এদিকে কোনওভাবেই বাড়ির লোক বৃদ্ধাকে দ্বিতীয়বার করোনা টেস্ট না করিয়ে বাড়ি নিয়ে যেতে না চাওয়ায় অবশেষে হাসপাতাল আবার করোনা টেস্ট করানো হয় ৷ করোনা ভাইরাস আবহে একের পর এক এমন ঘটনা সামনে আসছে যেখানে ভয়ের মাত্রা এতটাই বেশি হচ্ছে যার জেরে সাধারণ মানুষ নিজেদের কর্তব্য থেকেও পিছিয়ে আসছে ৷ এইভাবে বৃদ্ধাকে বাড়ি না নিয়ে যেতে চাওয়ার পদ্ধতি সেই ভয়েরই প্রকাশ ৷

Related Articles

Back to top button
Close