fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

অপহরণের ফন্দি এঁকে বাবার কাছে মুক্তিপণের দাবি শিক্ষক ছেলের

প্রদীপ্ত দত্ত, সিউড়ি: অপহরণের ফন্দি এঁটে বাবার কাছে মুক্তিপণের টাকা আদায় করতে গিয়ে গ্রেফতার পেশায় শিক্ষক ছেলের। ঘটনাটি ঘটেছে সিউড়ির গড়ুইঝোরা এলাকায়। ঘটনার সূত্রপাত রবিবার সকালে। সিরাজ খান নামে এক ব্যক্তির কাছে রবিবার সকালে এক অজ্ঞাতপরিচয় ব্যাক্তি ফোনে করে জানায়, তাঁর ছেলে আমীর খানকে অপহরণ করা হয়েছে। যদি নিজের ছেলেকে ফিরে পেতে চান তবে ৫ লক্ষ টাকা মুক্তিপণ দিতে হবে। সেইসঙ্গে তাঁরা একটি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের নম্বরও দেয়। ঘটনার কথা সঙ্গে সঙ্গে সিউড়ি থানায় জানিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন সিরাজ খান। এরপরই সিউড়ি থানার পুলিশ তদন্তে নামে। সঙ্গে সঙ্গে সন্দেহভাজন একজনকে গ্ৰেপ্তার করা হয়। থানার নির্দেশ সিরাজ খান এরপর ফোন করে অপহরণকারীদের সিউড়ি থানার অন্তর্গত তসরকাটার জঙ্গলে আসতে বলেন টাকা নেওয়ার জন্য, যাতে মুক্তিপণ নিয়ে দ্রুত তাঁর ছেলেকে ছেড়ে দেওয়া হয়। কারণ রবিবার ব্যাঙ্ক বন্ধ ,অ্যাকাউন্টে টাকা জমা দিতে পারবেন না। এরপর টাকা নিয়ে তসরকাটার জঙ্গলে সিরাজ খান যান। সাদা পোশাকে পুলিশ সেখানে আগেই অপেক্ষা করতে থাকে। টাকা নিতে এসে অপহরণকারীদের একজনকে ধরে ফেলে পুলিশ। ঘটনাস্থলের কাছেই আমীর খানকেও পাওয়া যায়।

তদন্তে পুলিশ জানতে পারে ধৃত অপহরণকারী সুমন রায় ও পল্টু মাহারা আমীর খানের বন্ধু। তাদের সঙ্গেই অপহরণের ষড়যন্ত্র আঁটে সিরাজ খানের ছেলে আমীর খান। এই তিনজনকে সোমবার সিউড়ি আদালতে তোলা হয়। সিউড়ি আদালতের মহামান্য বিচারক ওই তিনজনকে তিন দিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেন। সিউড়ি আদালতের আইনজীবী চন্দ্রনাথ গোস্বামী জানান , ” পুলিশ জানতে পেরেছে সিরাজ খানের ছেলে আমীর খান পেশায় প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষক টাকার অভাব হওয়াই মায়ের সঙ্গে ঝগড়া করে।

সিউড়ি আদালতের আইনজীবী চন্দ্রনাথ গোস্বামী জানান , ” পুলিশ জানতে পেরেছে সিরাজ খানের ছেলে আমীর খান পেশায় প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষক টাকার অভাব হওয়াই মায়ের সঙ্গে ঝগড়া করে বাড়ি থেকে গত ২৭ তারিখে বেরিয়ে যায়। ২৮ তারিখ অপহরণ হওয়ার কথা জানিয়ে বাড়িতে ফোন করে মুক্তিপণ চায় । আমীর খান নেশায় আসক্ত হয়ে পড়ায় টাকার প্রয়োজন হয়ে পড়েছিল । তাঁর জন্যই এই অপহরণের নাটক করে ।”  যদিও আমীর খান এই অপহরণ কান্ডের সঙ্গে নিজের যুক্ত থাকার কথা অস্বীকার করেছেন।

Related Articles

Back to top button
Close