fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

কত হতে পারে করোনা ভ্যাকসিনের দাম? স্পষ্ট করলেন সিরামের কর্ণধার

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক:  ভারতে চলতি মাসেই করোনা ভ্যাকসিনের হিউম্যান ট্রায়াল শুরু করবে সিরাম ইনস্টিটিউট বলে জানা গিয়েছিল। এবার এই ভ্যাকসিনের দাম সম্পর্কে জানালেন সিরামের কর্ণধার। সিরামের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, যত পরিমাণ ভ্যাকসিন তৈরি হবে, তার ৫০ শতাংশ বরাদ্দ থাকবে ভারতের জন্য। আর বাকি ৫০ শতাংশ গোটা বিশ্বের জন্য। সিরামের পক্ষ থেকে আরও জানানো হয় যে,  সব ঠিক থাকলে আগামী নভেম্বরেই ৩০ থেকে ৪০ লক্ষ করোনা ভ্যাকসিন বাজারে আসবে।

[আরও পড়ুন- রাজধানীতে গুলিবিদ্ধ সাংবাদিকে মৃত্যু, ঘটনার গ্রেফতার মোট ৯]

করোনা সংক্রমণ হু হু করে বেড়েই চলছে। এরমধ্যেই সুখবর দিয়েছে সিরাম ইনস্টিটিউট। অক্সফোর্ড ও অ্যাস্ট্রজেনেকার সঙ্গে চুক্তি করে ভারতে অক্সফোর্ডের ফর্মুলায় ডিএনএ ভ্যাকসিন তৈরি করছে সিরাম ইনস্টিটিউট অব ইন্ডিয়া। আগামী ৭ দিনের মধ্যে ভারতে করোনা ভ্যাকসিনের হিউম্যান ট্রায়াল শুরু করতে চায় সিরাম ইনস্টিটিউট। পাশাপাশি  হিউম্যান ট্রায়াল সফল হলে এই প্রতিষেধকের লক্ষাধিক ডোজ তৈরি করার কাজে নেমে পড়বে এই ইনস্টিটিউট। সিরাম সংস্থার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, আগামী ৭ দিনের মধ্যে ভারতে অক্সফোর্ডের করোনা টিকার অর্থাৎ ChAdOx1 nCoV-19 বা AZD1222  ট্রায়াল শুরুর জন্য কেন্দ্রীয় নিয়ন্ত্রক সংস্থার কাছে অনুমতি চাইবে পুনের এই ইনস্টিটিউট।

আর এই খবর প্রকাশ্যে আশার পরেই সাধারণ মানুষের মধ্যে গুঞ্জন তৈরি হয় যে, এই ভ্যাকসিনের দাম কত হতে পারে। সেই মত এবার এই গুঞ্জনের উত্তর দিলেন সংস্থার কর্ণধার। তিনি জানালেন যে, “এটা যতটা সম্ভব কম দামে দেওয়ার চেষ্টা করছি আমরা। আজ একটা করোনা পরীক্ষা করতে আড়াই হাজার টাকা লাগে। রেমডিসিভিরের মতো ওষুধ কিনতে হাজার হাজার টাকা লাগে। আমরা মোটামুটি এক হাজার টাকা বা তারও কিছু কম দামে এই প্রতিষেধক তৈরি করার চেষ্টা করছি। তবে আমার মনে হয় সাধারণ মানুষকে টাকা দিয়ে এই টিকা কিনতে হবে না। সরকারই তা কিনে নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যে বিলি করবে।”

 

 

Related Articles

Back to top button
Close