fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

গ্রামবাসীরা নিজেদের উদ্যোগে গড়লেন কোয়ারান্টাইন সেন্টার

সুকুমার রঞ্জন সরকার, কুমারগ্রাম :  কোয়ারান্টাইন সেন্টার গড়ে তোলার ক্ষেত্রে বিভিন্ন স্থানে বাধার সম্মুখীন হচ্ছেন প্রশাসনিক কর্তারা। এই ধরনের সংবাদ বিভিন্ন মাধ্যমে প্রায় প্রতিদিন স্থান পাচ্ছে, পুলিশ প্রশাসনের সাথে বাসিন্দাদের গন্ডগোলের ঘটনাও ঘটেছে। এই পরিস্থিতিতে নিজেরা উদ্যোগী হয়ে নিজেদের গ্রামেই কোয়ারান্টাইন সেন্টার গড়ে এক অন্যরকম নজির গড়লেন আলিপুরদুয়ার জেলার তালেশ্বরগুড়ির বাসিন্দারা।

এলাকার বাসিন্দা প্রান নার্জিনারী, দীপক ঈশ্বরারী, দীপক নার্জিনারী সহ অনেকেই জানান দিন দিন করোনা ভাইরাস সংক্রমণে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। ভিন রাজ্যে আটকে থাকা শ্রমিকরা বাড়ি ফিরতে শুরু করেছেন। এই গ্রামের অন্তত পঁচিশ জন ভিন রাজ্যে আটকে ছিলেন, তারা ফিরে এসেছেন। তাদের মাধমে করোনা সংক্রমণ যাতে ছড়িয়ে না পড়ে সেই উদ্দ্যেশ্যে স্থানীয় একটি ক্লাবের সদসয়রা গ্রামবাসীদের নিয়ে আলোচনায় বসেন। সেখানেই সিদ্ধান্ত হয় যারা বাইরে থেকে গ্রামে ফিরেছেন তাদের জন্য গ্রামেই একটি কোয়ারান্টাইন সেন্টার গড়ে তোলা হবে।

আরও পড়ুন: সাংবাদিক উপর হামলার প্রতিবাদে মাথাভাঙ্গা থানায় অবস্থান বিক্ষোভ সাংবাদিকদের

কিন্তু ঘর পাওয়া যাবে কোথায়? সমস্যা সমাধানে এগিয়ে এলেন গ্রামেরই গাদীও মুন্ডা, নিতাই মুন্ডা ও কুমার মিঞ্জ, তারা তাদের বাড়ি কোয়ারান্টাইন সেন্টার গড়ে তোলার জন্য ছেড়ে দিতে রাজী হলেন। গ্রামবাসীরাই তাদের আশ্রয় দিয়েছেন। এই বাড়ি তিনটিতেই গড়ে তোলা হয়েছে ভিন রাজ্য থেকে ফিরে আসা গ্রামবাসীদের জন্য কোয়ারান্টাইন সেন্টার। স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্য সুচিত্রা নার্জিনারী বলেন গ্রামবাসীদের এই উদ্যোগ একটি নজির হয়ে থাকবে। পুলিশ ও স্বাস্থ্য দফতরে সহযোগিতায় গ্রামবাসীরাই এই সেন্টার চালাবেন। গ্রামবাসীদের এই উদ্যোগ অন্যদেরও অনুসরন করা উচিত বলে মন্তব্য করেন শামুকতলা থানার ওসি বিরাজ মুখোপাধ্যায়।

Related Articles

Back to top button
Close