fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

কপিল মুনির আশ্রমের পুরোহিতের পাশে কোলাঘাটের স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা

বাবলু ব্যানার্জি, কোলাঘাট: চার মাস অতিক্রান্ত করোনা মহামারীর। বিশ্ব আজ চিন্তিত, চিন্তিত আমরা সবাই। রাজনৈতিক দলসহ বহু স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন জনের জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিচ্ছে। পূর্ব মেদিনীপুর জেলার কোলাঘাট ব্লকের এক স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান ‘সংকেত’ এবার কপিল মুনির আশ্রমের পুরোহিতের জন্য সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিল। সংখ্যাটা প্রায় দেড়শ জনের মত।

সাগর বেষ্টিত গঙ্গা সাগর দ্বীপ, সেখানে পুরান খ্যাত তীর্থস্থান কপিল মুনির আশ্রম। পৌষ সংক্রান্তির মেলা বাদেও সারা বছর ধরে দিকবিদিক থেকে অগণিত মানুষের সমাগম ঘটে এই আশ্রমে। বর্তমানে এখানে মানুষজনের সমাগম নেই। এরই মধ্যে ঘটে গেছে প্রবল ঘূর্ণিঝড় আমফানের তান্ডব। সমুদ্রে সৃষ্টি আমফানের ঝড় প্রথম স্থলভাগ এই সাগরদ্বীপেই আছড়ে পরে। সবকিছু তছনছ করে দেয়। এখনো কাটিয়ে উঠতে পারেনি। এই ভাবনা ও অনুভূতি থেকেই পূর্ব মেদিনীপুর জেলার একটি স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান কোলাঘাটের ‘সংকেত ‘পুরোহিত সহ আশপাশের দোকানদারদের মিলিয়ে প্রায় দেড়শ জনকে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র তুলে দিলেন। অনুষ্ঠান পর্ব শুরু হয় পবিত্র গঙ্গা মন্ত্র উচ্চারণের মধ্য দিয়ে।

বণ্টনকারী দের পক্ষে ডাক্তার শ্যামল আদক ও নুকুল দাস বলেন, করোনা আমফান নিয়ে নানা সেবামূলক কাজে এই সংস্থা যুক্ত, সেই সঙ্গে কাজও করে যাচ্ছে। আমরা আবারও এমন উদ্যোগ আগামী দিনে নেব মানুষের সেবার জন্য। ওই এলাকার পুরোহিত দেব শংকর পন্ডা বলেন, আগে যেমন ভক্ত সমাগম হত। করোনা ভাইরাসও আমফান ঝড়ের মত বিপর্যয়ের জন্য এখন সেই সমাগম নেই। দিন দিন আমাদের অবস্থা খুবই কঠিন হয়ে পড়ছে। এই ভাবে এগিয়ে এলে সাগরদ্বীপের মানুষজন প্রেরণা পাবে।

Related Articles

Back to top button
Close