fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

নিখিল ভারত বাঙালি সমন্বয় সমিতির পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য কমিটি গঠিত হল

শ্যামল কান্তি বিশ্বাস, কল্যাণী: কল্যাণীর চাদামারি বড় গোঁসাই আশ্রমে রাজ্য প্রতিনিধি সম্মেলন অনুষ্ঠিত হল। পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জেলা থেকে তিন শতাধিক উদ্বাস্তু মতুয়াগোসাই প্রতিনিধি সম্মেলনে অংশগ্রহণ করেন। সিএএ কেন বাস্তবায়িত হচ্ছে না, কেন আইন এখনও তৈরি হয়নি, এই নিয়ে প্রতিনিধিদের আলোচলায় তীব্র প্রতিক্রিয়া উঠে আসে।

সভায় সংগঠনের সর্বভারতীয় সভাপতি ডাঃ সুবোধ বিশ্বাস বলেন, আমরা নিঃশর্ত নাগরিকত্বের দাবি করেছিলাম। ভারত সরকার শর্তসাপেক্ষ নাগরিকত্ব দিয়েছে। আমাদের দাবি, দেশভাগের বলি যত উদ্বাস্তুরা ভারতে আশ্রিত, তাদের প্রত্যেককে ভারতের নাগরিকত্ব দিতে হবে। সেজন্য রুল সরলীকরণ করতে হবে। নির্বাচনের আগে উদ্বাস্তুদের নাগরিকত্বের ব্যবস্থা না করলে আমরা তীব্র আন্দোলনের পথে নামবো। এবং আগামীতে সমস্ত সামাজিক সংগঠনকে সাথে নিয়ে আন্দোলনের কর্মসূচি তৈরি করা হবে। আমরা উদ্বাস্তুর স্বার্থে লোকসভা নির্বাচনে বিজেপিকে সমর্থন করেছি। দাবি পূরণ না হলে ভোটবাক্সে উদ্বাস্তুদের শক্তি বুঝিয়ে দেওয়া হবে।

লোক কবি অসীম সরকার বলেন, একমাত্র কেন্দ্রের সরকারই নাগরিকত্ব দিতে পারে। বিজেপিকে গালাগাল করব আর বিজেপি সরকার নাগরিকত্ব দেবে সে হতে পারে না। আমাদের প্রধান কাজ আন্দোলনের মধ্য দিয়ে জনমত গঠন করা। আমরা অনেক ঠকেছি। আর নয়। আপনারা প্রস্তুত থাকুন। অল ইন্ডিয়া মতুয়া মহাসঙ্ঘের প্রাক্তন সম্পাদক সুকেশ চৌধুরী বলেন, সিএএ পাশ হয়েছে সে জন্য উৎসাহিত হলে চলবে না। এবার অধিকার বুঝে নিতে হবে। আপনারা ভেদাভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তুলুন। আমরা একজন যোগ্য নেতা ডাঃ সুবোধ বিশ্বাসকে পেয়েছি। তার হাত শক্তিশালী করে তুলুন।

এদিন অসিত মজুমদারকে সভাপতি, দুলাল বিশ্বাসকে সম্পাদক ও অনুতোষ হালদারকে কোষাধ্যক্ষ নির্বাচন করে ৩৫ সদস্যের রাজ্য কমিটি গঠিত হয়। সর্বসম্মতিক্রমে আজ থেকে “নিখিল ভারত বাঙালি সমন্বয় সমিতি” নামে সংগঠনটি স্বীকৃতি পেল। এই নামেই এই সমিতি সারা ভারতে কার্যক্রম পরিচালনা করবে।

সমিতির সাংগঠনিক ও উদ্বাস্তু বিরোধী কার্যকলাপের জন্য ডাঃ আশীষ ঠাকুর ও সন্দীপ বিশ্বাসকে বহিষ্কার করা হয়। বিশিষ্টদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় কমিটির গনপতি দাস, বিনয় বিশ্বাস ডাঃ সুশান্ত বিশ্বাস, গান্ধী ঠাকুর, গোপাল গোসাই, রঞ্জিত গোসাই, অরুন মল্লিক নারায়ন বিশ্বাস নারায়ন দাস, কপিল দেব বালা, বাসুদেব সরকার, প্রতুল চন্দ্র বালা, সহেলী ঠাকুর ,শুক্লা সেন, মৌসুমী মন্ডল, শ্যামলী দাস প্রমুখ।সমগ্ৰ অধিবেশনটিতে সভাপতিত্ব করেন নিশিকান্ত বাগচী।

Related Articles

Back to top button
Close