fbpx
আন্তর্জাতিকবাংলাদেশহেডলাইন

ধর্ষণের প্রতিবাদে ফুঁসছে পুরো বাংলাদেশ, বিক্ষোভে উত্তাল ঢাকার শাহবাগ

যুগশঙ্খ প্রতিবেদন, ঢাকা: বাংলাদেশে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ অব্যাহত রয়েছে। বুধবার বাংলাদেশের বিভিন্ন জেলায় বিক্ষোভ, অবরোধ, ও মিছিল হয়েছে। পাশাপাশি প্রতিবাদী স্লোগানে উত্তাল হয়ে উঠেছে ঢাকার শাহবাগ। ‘ধর্ষণের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ’ ব্যানারে বিভিন্ন বাম সংগঠনের কর্মীরা বুধবার সকালে শাহবাগে জাতীয় জাদুঘরের সামনে অবস্থান নেয়। এ সময় তারা স্লোগানে স্লোগানে ধর্ষকদের বিচার দাবি করেন এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর অপসারণ চান।

‘ধর্ষণের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ’ মুভমেন্ট এর অন্যতম আহ্বায়ক ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক অনিক রায় বলেন, ‘ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত ৯৯% অপরাধী ক্ষমতাসীন আওয়ামি লিগের কেউ না কেউ। একটি ঘটনার সুষ্ঠু বিচার হয়নি। অপরাধীরা পার পেয়ে যাচ্ছে। আমরা সবাই প্রতিবাদ জানাই।’

এসময় ‘উইমেন ফর বাংলাদেশ’ ও ‘ধর্ষণ ও নিপীড়ন বিরোধী ছাত্র-জনতা’ নামের আরও দুটি সংগঠন ধর্ষণের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী মানবশৃংখল করে। তারা ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি যাবজ্জীবন থেকে বাড়িয়ে মৃত্যুদ- করার দাবি জানান।

এরপর ঢাকা বিদ্যালয় ছাত্র সংসদের প্রাক্তন ভিপি নুরুল হক নূরের নেতৃত্বে একটি কালো পতাকা মিছিল মৎস্য ভবন, প্রেসক্লাব, পল্টন হয়ে জিরো পয়েন্টে গেলে পুলিশ তাদের আটকে দেয়। সেখানে তারা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি করেন। পরে জিরো পয়েন্টের সমাবেশে নূর ঘোষণা দেন, আগামী শুক্রবার বিকালে শাহবাগে ‘সরকারের গুম-খুন ও ধর্ষণের বিরুদ্ধে’ গণসমাবেশ ও মশাল মিছিল করবে ‘ধর্ষণ ও নিপীড়ন বিরোধী ছাত্র-জনতা’।

সরকারের সমালোচনা করে তিনি বলেন, “আজকের যদি ধর্ষণের বিরুদ্ধে আমরা গণ-আন্দোলন গড়ে তুলতে না পারি, এই ধর্ষণ বন্ধ হবে না। এই ধর্ষণ থেকে আমরা রেহাই পাব না।” এছাড়া নোয়াখালীতে গৃহবধূকে বিবস্ত্র করে নির্যাতন ও সিলেটে এমসি কলেজে গৃহবধূকে ধর্ষণে তোলপাড়ের মধ্যে প্রতিবাদ-বিক্ষোভ চলছে জেলায় জেলায়। মঙ্গলবার জয়পুরহাটে মোমবাতি প্রজ্বলন করেছে শিক্ষার্থীরা, নীলফামারী, রাজবাড়ী, গাইবান্ধা, রংপুর ও রাজশাহীতে বিক্ষোভ-মানবশৃংখল করেছে ছাত্রছাত্রীসহ সর্বস্তরের জনতা। এসব সমাবেশে বক্তরা ধর্ষণের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদ- করে দেশের আইন সংস্কারের দাবি জানান।

Related Articles

Back to top button
Close