fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

দিনহাটার সুফল বাংলা স্টলের থেকে আলুর সঙ্গে পেঁয়াজ সরবরাহ করারও দাবি উঠেছে

নিজস্ব সংবাদদাতা, দিনহাটা: আলুর পাশাপাশি পেয়াজের দামও অনেকটাই বেশি। নতুন ও পুরনো আলু ৪৫-৬০ টাকার মধ্যে ঘোরাফেরা করছে । দিনহাটার সুফল বাংলা স্টলের থেকে আলুর পাশাপাশি পেঁয়াজ সরবরাহ করারও দাবি উঠেছে।লাইনে দাঁড়িয়ে থাকা অনেকেই বলেন আলুর মত পেয়াজ দেওয়া হলে সুবিধা হত।

 

নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রীর পাশাপাশি আলুর দাম যেভাবে বাড়ছে বিপাকে মধ্যবিত্ত পরিবার। কবে আলুর দাম স্বাভাবিক হবে সেদিকে তাকিয়েই তারা। দিনহাটার বিভিন্ন খুচরো বাজারে আলুর দাম ৪৫-৫০ টাকা কেজি। এদিকে নতুন আলু এবছর এখনো সেভাবে বাজারে আসেনি বলে দাবি। নতুন আলু অল্প উঠলেও বিক্রি হচ্ছে ৬০ টাকা কেজি। গ্রামের বাজারগুলিতে আলুর দাম আরও বেশি বলে জানা গিয়েছে। পাশাপাশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ৫০-৫৫ টাকা। আলু ও পেঁয়াজের দাম অনেকটাই বেশি থাকায় কিনতে হিমশিম অবস্থা বাসিন্দাদের।

এদিকে, সুফল বাংলা স্টল সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রতিদিন ৩০ বস্তা অর্থাৎ ১৫ কুইন্টাল আলু বিক্রি করা হচ্ছে। সকাল আটটা থেকে দুপুর দু’টো পর্যন্ত আবার তিনটা থেকে বিকাল পাঁচটা পর্যন্ত একটানা কয়েক ঘন্টা আলু বিক্রি হচ্ছে। গ্রাহকদের অনেকেই আলুর পাশাপাশি পেঁয়াজ চাচ্ছেন। কিন্তু পেঁয়াজ সরবরাহের কোন নির্দেশিকা এখনো আসেনি।

বাসিন্দাদের অরুণ রায় বলেন, “বর্তমানে কঠিন সময়ে আয় অনেকটাই কমে গেছে। প্রতিদিন ৫০০ গ্রামের উপরে আলু লাগে। বাইরে আলু কিনতে গেলে পুরনো আলুর প্রতি কেজি দাম পড়ে ৪৫-৫০ টাকা। আবার নতুন আলু ৬০ টাকা। সুফল বাংলায় দাম কম থাকায় এখান থেকে প্রায় দিনই আলু কিনি। আলুর পাশাপাশি পেঁয়াজ দেওয়া হলে আরো ভালো হত ।”বাসিন্দাদের কাজল কর্মকার, বাসুদেব সাহা, শুভঙ্কর বিশ্বাস প্রমুখ বলেন,”সুফল বাংলায় আলু দেওয়ায় প্রায় দিনই এসে নিয়ে যাই। ইতিপূর্বে এখান থেকে পেঁয়াজ বিক্রি করা হয়। সরকারিভাবে আবারো পিয়াজ দেওয়া শুরু হলে অনেকটাই সাশ্রয় হবে।”

দিনহাটার সুফল বাংলা বিপণিতে দায়িত্বে রয়েছে আবুতারা প্রগ্রেসিভ ফার্মাস প্রডিউসার কোম্পানি নামে একটি সংস্থা। সংস্থার ডিরেক্টর শুভময় সরকার বলেন,”বাসিন্দারা অনেকেই আলু নিতে এসে পেঁয়াজের খোঁজ করছে। পেঁয়াজের চাহিদা বিষয়টি প্রশাসনকে জানিয়েছি।” দিনহাটা মহকুমা ব্যবসায়ী সমিতির সম্পাদক রানা গোস্বামী, ব্যবসায়ী কল্যান সমিতির সম্পাদক উৎপলেন্দু রায় প্রমুখ বলেন,”চওড়াহাট-বাজারে সুফল বাংলা বিপরীতে আলুর পাশাপাশি যাতে পেঁয়াজ সরবরাহ করা হয় তার জন্য প্রশাসনের কাছে আবেদন জানান হয়েছে ।” বিষয়টি নিয়ে মহকুমাশাসক হিমাদ্রি সরকার বলেন,”সুফল বাংলা বিপনীর স্টলে পেঁয়াজ সরবরাহ করা যায় কিনা তা দেখা হচ্ছে।

Related Articles

Back to top button
Close