fbpx
আন্তর্জাতিকহেডলাইন

চিনে ধর্মীয় স্বাধীনতা নেই: মাইক পম্পেও

রোম,(সংবাদ সংস্থা): চিন এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে উত্তেজনা আবার চরমে ওঠার উপক্রম। ইতালি সফরে গিয়ে চিনের সমালোচনা করেছেন মার্কিন বিদেশ মন্ত্রী মাইক পম্পেও। তিনি অভিযোগ তুলেছেন ‘চিনের মানুষের ধর্মীয় স্বাধীনতা নেই’। একইসঙ্গে তিনি প্রশ্ন তুলেছেন, ভ্যাটিকান কেন বেজিংয়ের সঙ্গে চুক্তি পুনর্নবায়নের পরিকল্পনা করছে?

বুধবার ভ্যাটিকানের হোলি সিতে মার্কিন দূতাবাসের পক্ষ থেকে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন মাইক পম্পেও। এই অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে মাইক পম্পেও চিনের শাসকদলকে তীব্র আক্রমণ করে বলেন, ‘চিনে মানুষের ধর্মীয় স্বাধীনতা যেভাবে কেড়ে নেওয়া হয় তা বিশ্বের আর কোথাও হয় না। চিনের কমিউনিস্ট পার্টির নেতৃত্বে ধর্মীয় স্বাধীনতার আলো যেভাবে নেভানোর চেষ্টা চলে তা একথায় ভয়ানক।’

এখানেই থেমে থাকেননি পম্পেও। নিজেকে খ্রিস্টান ধর্মীয় অধিকার রক্ষার একজন সৈনিক বলে দাবি করেন তিনি। এরপর তিনি উইঘুর সম্প্রদায়ের উপর চিন যেভাবে অত্যাচার চালাচ্ছে তার তীব্র সমালোচনা করেন। তিনি বলেন, ‘চিনের উইঘুর মুসলিমসহ সব সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষদের উপরেই অত্যাচার চালানো হয়। শুধু তাই নয়, চিনের কমিউনিস্ট পার্টির দমন নীতির ফলে সেখানে বসবাসকারী সব ধর্মীয় সম্প্রদায়ের মানুষদের জীবনই দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে। সেখানে প্রোটেস্ট্যান্ট হাউস চার্চ ও তিব্বতীয় বৌদ্ধসহ বিভিন্ন সম্প্রদায়ের মানুষরা প্রায় প্রতিদিনই অকথ্য অত্যাচারের শিকার হচ্ছেন।’

আরও পড়ুন:মহাত্মা গান্ধীর জীবন ছিল তাঁর বার্তা: রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ

সূত্রের খবর, অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে এশিয়া সফরে আসছেন মাইক পম্পেও। জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়ার পাশাপাশি মঙ্গোলিয়াতেও যাওয়ার কথা রয়েছে তার। এই সফরে তিনি চিন ও উত্তর কোরিয়া নিয়ে আলোচনা করবেন বলে জানা গেছে। এমনকি, আগামী ৬ অক্টোবর, জাপানে সফরকালে তিনি ভিডিও কনফারেন্সে অস্ট্রেলিয়া ও ভারতের বিদেশ মন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলবেন বলে জানা গেছে।

Related Articles

Back to top button
Close