fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বগুলায় করোনা আবহে রক্তদান শিবিরে ব্যাপক সাড়া

নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুলা: করোনা আবহে লকডাউন, তার উপর আবার ব্যবসায়ী দের ডাকা বাজার বনধ। সব ধরনের প্রতিবন্ধকতাকে উপেক্ষা করেও শেষ পর্যন্ত পূর্ব নির্ধারিত কর্মসূচি অনুযায়ী রক্তদান শিবিরের আয়োজনে কোন ত্রুটি রাখেনি ক্লাব কর্তৃপক্ষ। আয়োজন বৃন্দ, অতিথি বর্গ, রক্তদাতা, ব্লাড ব্যাংকের ব্যাবস্থাপনা, সব কিছুই ছিল সুপরিকল্পিত এবং সর্বাঙ্গ সুন্দর। পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচী অনুযায়ী বিধায়ক সমীর কুমার পোদ্দার রক্তদান শিবিরের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

উদ্বোধনের পর তার সংক্ষিপ্ত ভাষণে সমীর বাবু বলেন, রক্ত দানের মতো এই মহৎ কর্মসূচি বাস্তবায়নের পাশাপাশি আয়োজক ক্লাব গুলিকে সমাজের অসহায় নাগরিক বৃন্দের সব ধরনের সাহায্য সহানুভূতির সহ উন্নয়ণমূলক কাজকর্মে এগিয়ে এসে অগ্ৰনী ভূমিকা পালন করতে হবে। আজ ১৯ শে জুলাই বগুলার প্রাচীন ঐতিহ্যবাহী টাউন ক্লাব আয়োজিত রক্তদান শিবির উদ্বোধন করতে এসে কথাগুলি বলেন রানাঘাট উত্তর পূর্ব ( সংরক্ষিত) বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক সমীর কুমার পোদ্দার। বগুলা টাউন ক্লাব আয়োজিত এই রক্তদান শিবিরে মোট ৪২ জন রক্তদাতা স্বেচ্ছায় রক্তদান করেন। ক্লাবের সদস্য, সদস্যা সহ বর্ধিত বগুলা এলাকার স্বতঃস্ফূর্ত যুব-যুবার উপস্থিতি ও যোগদান ছিল চোখে পড়ার মতো।

এলাকার বিভিন্ন সেবামূলক সংস্থা ও স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠানের স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণে রক্তদান শিবির কার্যত রক্তদান উৎসবে পরিণত হয়। উদ্দ‍্যোক্তাদের পক্ষ থেকে রক্তদান শিবিরের পাশাপাশি অতিমারি করোনা এবং প্রাকৃতিক বিপর্যয় আমফান প্রেক্ষাপটে দেশের সংকটময় পরিস্থিতিতে এলাকার ক্ষতিগ্ৰস্থ অসহায় কর্মহীন পরিবারগুলির সাহায্যার্থে যে সকল সংস্থা কিংবা স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান এগিয়ে এসে সাহায্যের হাত বাড়িয়েছিল, তাদের উৎসাহিত করার পাশাপাশি স্বীকৃতি স্বরূপ মানপত্র প্রদানের সিদ্ধান্তে খুশি এলাকার সর্বস্তরের মানুষ। ক্লাবের ঐতিহ্যের ধারাকে অক্ষুন্ন রাখার পাশাপাশি অভিভাবকের ভূমিকায় অবতীর্ণ হওয়া যথার্থ এবং সময়োপযোগী সিদ্ধান্ত বলে মনে করেন এলাকার বুদ্ধিজীবী মহল।

ইন্ডিয়ান রেডক্রস সোসাইটি (বগুলা ইউনিট),বগুলা মহাকাল সেবাশ্রম, স্বজনভূমি, নেতাজী ইউথ ফোর্স, বগুলা রুটি ব্যাংক, প্রায়স ভাত ব্যাংক, আঁচল, ইকো ফ্রেন্ডস ক্লাবের প্রতিনিধি তথা বিজয়ী যোদ্ধাদের হাতে পুষ্পস্তবক ও মানপত্র তুলে দেন বিধায়ক সমীর কুমার পোদ্দার। এই মহতী কর্মযজ্ঞে সম্মানীয় অতিথি বর্গের আসন অলংকৃত করেন, হাঁসখালি থানার অফিসার ইনচার্জ রজনী কান্ত বিশ্বাস, বগুলা গ্ৰামীণ হাসপাতালের সুপার তথা হাঁসখালী ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারীক ডাঃ বীরেন মজুমদার, নদীয়া জেলা পরিষদের সদস্য কল্যাণ ঢালি প্রমুখ।

Related Articles

Back to top button
Close