fbpx
কলকাতাহেডলাইন

মহিষাসুর নয়, শহর দেখবে ‘করোনাসুর বধ’

শরণানন্দ দাস, কলকাতা: ছকভাঙা পুজোয় এবার শহর দেখবে ‘করোনাসুর বধ’। না, না এটা কোন যাত্রাপালা নয়। পুজোয় এবার পাঁচ দিন করোনাসুরের সঙ্গে ধুন্ধুমার ‌লড়াই হবে দেবী দুর্গার। দমদমের কাছে নাগের বাজারের তেলিপুকুর যুবক সঙ্ঘের পুজো মণ্ডপে হবে এই মহারণ।
শনিবার কুমোরটুলিতে প্রতিমা শিল্পী ইন্দ্রজিৎ পাল শেষ মুহূর্তের ‘টাচ’ দিচ্ছেন করোনা সুরের মূর্তিতে। বাদামী রঙের শরীর, ভাঁটার মতো লাল চোখ, চুলে করোনার ‘ স্পাইক’। চিরাচরিত মহিষাসুরের মূর্তির বদলে করোনাসুর কেন? শিল্পী বলেন, ”আইডিয়াটা আমার মাথাতেই এসেছিল। তখন এপ্রিলের শুরু, করোনার জন্য তখন লকডাউন চলছে। আদৌ এ বছর পুজো হবে কী না তাই নিয়ে ধন্দে আছি। এই রকম একটা সময়ে নাগের বাজারের তেলিপুকুর পুজো কমিটি আমার সঙ্গে যোগাযোগ করলেন। আমি তখন ওদের কাছে বলি করোনাসুর করলে কেমন হয়? মা দুর্গা করোনাসুরকে বধ করে পৃথিবীকে করোনা মুক্ত করবেন। ওঁরাও রাজি হয়ে গেলেন। আমাদের মায়ের কাছে এই প্রার্থনা করোনাসুরকে বধ করো, করোনা মুক্ত করো।’
কুমোরটুলিতে এখন চূড়ান্ত ব্যস্ততা। বেশ কিছু প্রতিমা রওনা দিয়েছে মণ্ডপে। এই মূর্তিটিও দু একদিনের মধ্যে রওনা দেবে । কিন্তু করোনা সুরকে দেখতে ইতিমধ্যেই ভিড় জমেছে ইন্দ্রজিতের স্টুডিওতে। ফোটোগ্রাফার, বিভিন্ন চ্যানেলের ক্যামেরাও হাজির। সব মিলিয়ে কুমোরটুলির নতুন তারা ইন্দ্রজিৎ পাল। ময়দানে ‘ডার্বি’ যেমন নতুন তারকা তুলে আনে ঠিক তেমনি। ইন্দ্রজিৎ অবশ্য বললেন, ‘ যে ভাবনা থেকে প্রতিমা গড়েছি, সেটা সত্যি হলে খুব তৃপ্তি পাবো। একটাই প্রার্থনা, করোনা মুক্ত হোক পৃথিবী।’

Related Articles

Back to top button
Close