fbpx
আন্তর্জাতিকহেডলাইন

এবার চিনের সঙ্গে রাশিয়ার দ্বন্দ্ব, স্থগিত এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র সরবরাহ

মস্কো, (সংবাদ সংস্থা): অত্যাধুনিক ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষাব্যবস্থা এস-৪০০ চিনের কাছে সরবরাহ বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে রাশিয়া। তবে এই ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষাব্যবস্থা সরবরাহ আগামীতে পুনরায় শুরু হবে কিনা, তা এখনো জানানো হয়নি রাশিয়ার পক্ষ থেকে। সূত্রের খবর, দুই দেশের মধ্যে বেশ ঘনিষ্ঠ মিত্রতা থাকলেও চিন গুপ্তচরবৃত্তি করছে মস্কোর পক্ষ থেকে এমন অভিযোগ ওঠার পরই এস-৪০০ এর চালান স্থগিত হয়েছে।

আরও পড়ুন:হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত সোমেন মিত্র, শোকস্তব্ধ রাজনীতি মহল

এপ্রসঙ্গে চিনা দৈনিক সোহু জানিয়েছে, ‘এবার চিনের কাছে এস-৪০০ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষাব্যবস্থার চালান বন্ধ করার ঘোষণা দিয়েছে রাশিয়া। তবে কিছু বিবেচনায় আমরা বলতে পারি এটা চিনের সুবিধার কথা ভেবেই করা হয়েছে। চুক্তি সই করার পর কোনও সমরাস্ত্র পাওয়ার বিষয়টি আদতে অতটা সহজ নয়।

আরও পড়ুন:বিজেপি কর্মীর ওপর নির্মম হামলা, গ্রেফতার ১ তৃণমূল কর্মী

‘ চিনা দৈনিক সোহু আরও জানিয়েছে ‘এই সমরাস্ত্র ডেলিভারি করার কাজটা খুবই জটিল। কেননা চিনে প্রশিক্ষণের জন্য সেনা পাঠাতে, ক্ষেপণাস্ত্রগুলি বহরে যুক্ত করার জন্য রাশিয়ারও অনেক কারিগরি প্রযুক্তিসম্পন্ন সেনার দরকার পড়বে। ফলে এমন সময়ে এসব ঝুঁকি না নিয়ে সরবরাহ বন্ধের এই সিদ্ধান্ত।’ এদিকে, বেজিং-এর পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘এস-৪০০ সরবরাহ করা হলে তা চিনের পিপলস লিবারেশন আর্মি করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে যেসব পদক্ষেপ নিচ্ছে তাতে প্রভাব ফেলবে, আর রাশিয়া এটা কখনোই চায় না। মস্কো এরকম উদ্বেগ থেকেই এ ধরনের সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছে।’

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে রাশিয়ার তৈরি এই আকাশ প্রতিরক্ষা ব্যবস্থার প্রথম চালানটি চিনে পৌঁছায়। রাশিয়া যেসব আকাশ ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা তৈরি করে তার মধ্যে সবচেয়ে অত্যাধুনিক হলো এস-৪০০। কিন্তু, বর্তমানে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে মস্কো ও বেজিংয়ের সম্পর্কে ফাটল ধরেছে। দুই দেশের মধ্যে কূটনৈতিক দ্বন্দ্বের কারণেই রাশিয়া এখন এস-৪০০ এর চালান স্থগিতের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে আন্তর্জাতিক মহলের অভিমত। কেননা, সম্প্রতি চিনের হাতে গোপন তথ্য তুলে দেওয়ার অভিযোগে, সেন্ট পিটার্সবার্গ আর্কটিক সোশ্যাল সায়েন্স অ্যাকাডেমির প্রেসিডেন্ট বেলেরি মিটকোকে গ্রেফতার করেছে রাশিয়া।

Related Articles

Back to top button
Close