fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

পাহাড়ে যারা আগুন লাগিয়েছে তাদেরকেই নেভাতে হবে: দিলীপ ঘোষ

সুদর্শন বেরা, পশ্চিম মেদিনীপুর: ‘পাহাড়ে যারা আগুন লাগিয়েছে, তাদেরকে নেভাতে হবে সেই আগুন, মঙ্গলবার বিনয় তামাং প্রসঙ্গে এইভাবেই গর্জে ওঠেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি তথা মেদিনীপুর লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ সাংসদ দিলীপ ঘোষ। মঙ্গলবার রাতে মেদিনীপুর শহরের বিদ্যাসাগর হল প্রাঙ্গনে বিজেপির দলের মেদিনীপুর বিধানসভা কেন্দ্র এলাকার বিজয়া সম্মিলনী অনুষ্ঠানে এসে বিনয় তামাং প্রসঙ্গে এমনই মন্তব্য শোনা যায় দিলীপ ঘোষের মুখে।  এদিন সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি বলেন, বিজেপি একটা পরিবার এই নিয়ে ভাবতে হবে না তৃণমূলকে।

প্রসঙ্গত, বেশ কয়েক মাস ধরে রাজনৈতিক অনুষ্ঠান সহ বিভিন্ন সরকারি অনুষ্ঠানে দেখা যায়নি পরিবহনমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীকে, ইতিমধ্যেই সেই বিষয় নিয়ে বিভিন্ন রাজনৈতিক মহলে উঠেছে জল্পনা। এই দিন সেই বিষয় নিয়ে কার্যত মুখ খুললেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি তথা মেদিনীপুর লোকসভা কেন্দ্রের সংসদ দিলীপ ঘোষ। তিনি বলেন, আমাদের দলের দরজা খোলা রয়েছে। যারা আসতে চাইবেন তাদের আমরা স্বাগত জানাব। এক কথায় বলা যেতে পারে ইতিমধ্যেই পরিবহনমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে কার্যত জল্পনার জগতে ভাসছে রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। তাই শুভেন্দু অধিকারী বিজেপিতে যোগ দিলে তাকে সাদরে বরণ করে নিতে কোনও অসুবিধা হবে না বলে দীলিপবাবু ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য করেন।

আরও পড়ুন:‘রাষ্ট্রদ্রোহী, সমাজবিরোধী, দুর্নীতিগ্রস্তরাই এখন তৃণমূলের নেতা’, কটাক্ষ দিলীপ ঘোষের

তবে তিনি বলেন, যারা পাহাড়ে আগুন লাগিয়েছে তাদেরকে আগুন নেভাতে হবে পাহাড়ের মানুষ অসহায় অবস্থার মধ্যে রয়েছে তাদের কষ্টের মধ্যে দিন কাটছে। আমরা পাহাড়বাসীর আজ পাশে রয়েছি। আমরা পাহাড়ে শান্তি চাই। পাহাড়ের মানুষ যাতে ভালোভাবে বসবাস করতে পারে, সুখে থাকতে পারে সে ব্যাপারে রাজ্য সরকারকে উদ্যোগ নিতে হবে। রাজ্য সরকার চাইলে কেন্দ্র সরকার রাজ্যকে সাহায্য করবে।
সেইসঙ্গে তিনি বলেন, গোটা রাজ্য জুড়ে যা চলছে তাতে যে রাজ্যে গণতন্ত্র বলে কিছুই নেই। তাই গণতন্ত্র রক্ষার জন্য এবং বাংলায় নতুন করে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার জন্য তিনি সকলকে বিজেপিকে সমর্থন করার আহ্বান জানান। সেই সঙ্গে দলের নেতা-কর্মীদের ও সর্বস্তরের মানুষকে তিনি বিজয়ার শুভেচ্ছা ও আগাম দীপাবলির শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান।

Related Articles

Back to top button
Close