fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

ইছাপুরে স্বামী বিবেকানন্দের মূর্তিতে হামলার ঘটনায় ধৃত ৩ দুষ্কৃতী 

অলোক কুমার ঘোষ, ব্যারাকপুর: উত্তর ২৪ পরগনার নোয়াপাড়া থানার অন্তর্গত ইছাপুর কদমতলায় স্বামী বিবেকানন্দের মূর্তিতে দুষ্কৃতী হামলার ঘটনায় ৩ জন কুখ্যাত দুষ্কৃতীকে গ্রেপ্তার করল নোয়াপাড়া থানার পুলিশ । শুক্রবার গভীর রাতে ইছাপুর কদমতলা এলাকায় স্বামীজীর আবক্ষ মূর্তি ভাঙার চেষ্টা করে ৩ কুখ্যাত দুষ্কৃতী । শনিবার সকালে দেখা যায় স্বামীজীর আবক্ষ মূর্তির বাইরের কাঁচের আবরণ ভেঙে গেছে ।

এরপরই স্থানীয় এক দোকানের সিসিটিভি ফুটেজ পরীক্ষা করলে দেখা যায় ইছাপুর ২০ নম্বর রেলগেট এলাকার কুখ্যাত ৩ দুষ্কৃতী এই ঘটনা ঘটিয়েছে । তড়িঘড়ি তদন্তে নামে নোয়াপাড়া থানার পুলিশ । পুলিশ ১২ ঘণ্টার মধ্যেই গ্রেপ্তার করে এই মূর্তি ভাঙার চেষ্টার ঘটনায় জড়িত তিন অভিযুক্তকে । ধৃতদের নাম জানা গেছে অজয় হরি ওরফে ব্যঙ্গ, বিট্টু সাঁতরা এবং রাজেশ সিং । নোয়াপাড়া থানার পুলিশ জানিয়েছে, এই তিন দুষ্কৃতী ইছাপুর কদমতলা এলাকায় স্বামীজীর আবক্ষ মূর্তি ভাঙার চেষ্টা করেছিল ।

এই দুষ্কৃতীরা নেশাগ্রস্ত অবস্থায় ওই মূর্তিতে আঘাত করলে মূর্তির বাইরের কাঁচের আবরণ ভেঙে যায় । পরে সেই শব্দে স্থানীয়রা বাড়ির বাইরে বেরলে ওই দুষ্কৃতীরা পালিয়ে যায় । গোটা ঘটনায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয় ইছাপুর এলাকায় । তৃণমূল কংগ্রেস অভিযোগ করে এই কান্ড ঘটিয়েছে বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা । রাজ্যের শাসকদল বিষয়টি নিয়ে ইছাপুর কদমতলা এলাকায় প্রতিবাদ সভা করে । তবে বিজেপির পক্ষ থেকে জানানো হয়, যে দুষ্কৃতীরা গ্রেপ্তার হয়েছে, তারা বিজেপি দলের কেউ নন । এদিকে নোয়াপাড়া থানার পুলিশ সূত্রের খবর, যে ৩ দুষ্কৃতী ধরা পড়েছে তারা ইছাপুর এলাকার কুখ্যাত সমাজ বিরোধী । ইছাপুর এলাকায় এই দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে একাধিক অসামাজিক কাজের অভিযোগ আছে । এই মূর্তি ভাঙার চেষ্টা করেছিল মূলত অজয় হরি ওরফে ব্যঙ্গ ।  পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, ধৃত ৩ দুষ্কৃতী পুলিশের কাছে তাদের অপরাধ স্বীকার করেছে । স্বামীজীর এই মূর্তিতে হামলার ঘটনার জেরে ইছাপুর এলাকায় তৃণমূল ও বিজেপির মধ্যে শুরু হয়েছে রাজনৈতিক চাপানউতর ।

Related Articles

Back to top button
Close