fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

আমফানে ক্ষতিগ্রস্তদের ফর্ম বিলি নিয়ে তৃণমূল ও বিজেপি সংঘর্ষ, আহত একাধিক কর্মী

মিলন পণ্ডা, কাঁথি: আমফানে ক্ষতিগ্রস্তদের ফর্ম ফিলাপ দিয়ে দুই রাজনৈতিক দলের মধ্যে ব্যাপক উওেজনা ছড়ালো। কাঁথি দেশপ্রান ব্লকের ধোবাবেড়িয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের বিজেপি ও তৃণমূল সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে উঠল গোটা এলাকা। ঘটনা দুপক্ষে বেশ কয়েকজন আহত হয়। এদেরকে উদ্ধার করে কাঁথি মহাকুমা হাসপাতালের ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা গুরুতর বলে জানা গিয়েছে। এই ঘটনার জেরে রাজনৈতিক চাপানোতোর শুরু হয়েছে। ঘটনাটি ঘটছে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার কাঁথি দেশপ্রাণ ব্লক ধোবাবেড়িয়া গ্রাম পঞ্চায়েতের জগনাথচক এলাকায়। ঘটনার খবর পেয়ে ছুটে যায় কাঁথি থানার বিশাল পুলিশবাহিনী।

পুলিশ ও স্থানীয় সুত্রে জানাগিয়েছে, রবিবার দুপুরে গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় তৃণমূল নেতারা আমফানের  ক্ষতিগ্রস্ত বাড়িতে ফর্মফিলাপ করতে বাড়িতে পরিদর্শনের যায় তৃণমূল নেতারা। তৃণমূল কর্মীদের বেছে বেছে ফর্ম বিলি করছে শাসকদল বলে বিজেপি অভিযোগ। এই ঘটনার এলকায় গ্রামের মহিলা সহ পুরুষরা একজোট হয়ে প্রতিবাদ করেন। এই ঘটনার তৃণমুলের গুণ্ডাবাহিনী এসে মহিলা সহ বেশ কয়েকজন তাদের সক্রিয় কর্মীকে মারধর করে বলে বিজেপি অভিযোগ। অপর দিকে বিজেপি স্বতঃস্ফূর্তভাবে তাদের নেতাকর্মীদের উপর হামলা চালায় বলে তৃণমূলের অভিযোগ। এই ঘটনায় তাদের তৃণমুলের অঞ্চল সভাপতি সহ বেশ কয়েকজন তৃণমূল নেতাকর্মীরা আহত হয়েছে।

আরও পড়ুন: শোকস্তব্ধ বলিউড… প্রয়াত বিশিষ্ট সঙ্গীত পরিচালক ওয়াজিদ খান

কাঁথি সাংগঠনিক বিজেপির সভাপতি অনুপ চক্রবর্তী বলেন, গত কয়েকদিন ধরে আমফানে ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে ক্ষতি পূরণের নামে পুলিশ প্রশাসনকে সঙ্গে নিয়ে তৃণমূল নেতারা দুর্নীতি করছিল। গ্রামের ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের মহিলারা একজোট হয়ে ঘটনার প্রতিবাদ জানায়। রবিবার দুপুরে মহিলার বাড়িতে এসে তৃণমূল গুন্ডাবাহিনীরা এসে হামলা চালায়। এই ঘটনায় আমাদের চারজন কর্মী গুরুতর জখম হয়েছে। এই ঘটনায় তীব্র ধিক্কার জানাই। কাঁথি দেশপ্রান ব্লকের তৃণমুলের পঞ্চায়েত সমিতির সহ সভাপতি তরুন জানা বলেন, আমরা সবাইকে ক্ষতিগ্রস্ত ফর্ম বিলি করছি। রাজনৈতিক ভাবে উদ্দেশ্য প্রনোদিতভাবে বিজেপি এলাকায় গন্ডগোল পাকাচ্ছে। যাদের প্রকৃত বাড়ি ভেঙে গেছে তারা অবশ্যই ক্ষতিপূরণ পাবেন।

কাঁথি এক পুলিশ আধিকারিক জানায়, ঘটনার খবর পেয়ে এলাকায় গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনা হয়েছে। যদিও কোন পক্ষ থানার অভিযোগ দায়ের করেনি৷ এলাকায় উত্তেজনা থাকায় পুলিশ টহল চলছে। অভিযোগ পেলে পুরো ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হবে।

Related Articles

Back to top button
Close