fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বৈশালীর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ, পিকে’র টিমের সামনেই প্রকাশ্যে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব

মনোজ চক্রবর্তী, হাওড়া: ফের বালি কেন্দ্রে উঠে এল তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দল। বালির বিধায়ক বৈশালী ডালমিয়া  ও ব্লক সভাপতি তফসিল আহমেদের মধ্যে বিবাদ মেটানোর জন্য বুধবার পিকের টিম জরুরী বৈঠক ডাকে বলে  রাজনৈতিক মহলের ধারনা। কিন্তু সেই বৈঠকেই অনুপস্থিত ছিলেন বিধায়ক। প্রসঙ্গত কিছুদিন আগেই ‘বেসুরো চরিত্রে’ হাওড়ার বালির বিধায়ক বৈশালী ডালমিয়ার নাম উঠে এসেছিল।তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে সরব হন তৃণমূলের প্রাক্তন কাউন্সিলর।

জানা গিয়েছে, বুধবার সাতসকালে হাওড়ার বালি বিধানসভায় এলাকার একটি প্রেক্ষাগৃহে জরুরী মিটিংএ বিদায়ী কাউন্সিলর এবং অন্যান্য পার্টি সদস্যদের নিয়ে জরুরী বৈঠকে বসলেন টিম পিকের কর্তারা। তবে দেখা মেলেনি বৈশালী ডালমিয়ার। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, করা যেতে পারে গত কয়েকদিন ধরেই প্রাক্তন কাউন্সিলর তথা বিদায়ী ব্লক সভাপতির সঙ্গে ফেসবুক দ্বৈরথ এবং তারপরে এই বিষয়টি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশ হওয়ার পরে রাজনৈতিক চাপান উতোর শুরু হয়েছিল। রাজনৈতিক মহলের অনুমান অভিমত এই দুই পক্ষকে জোড়া দেওয়ার জন্যই এদিন এই বৈঠক। অপরদিকে হাওড়ার লিলুয়াতেও প্রকাশ্যে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব সামনে উঠে এল। প্রাক্তন কাউন্সিলরের সঙ্গে বৈশালী ডালমিয়ার পিএ ধাক্কাধাক্কি গালিগালাজ হয়। বৈশালী ডালমিয়ার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে তা নিয়ে সরব হন প্রাক্তন কাউন্সিলর।

তবে বৈশালী ডালমিয়া এই সভায় অনুপস্থিত থাকায় জল্পনা শুরু হয়েছে রাজনৈতিক মহলে। জননী কর্মসূচি নিয়ে বালি বিধানসভা এলাকার ১৬ জন প্রাক্তন কাউন্সিলর নিয়ে বৈঠক করছিল পিকের টিম। বৈঠক শেষ হবার সময় বালির মহিলা সভাপতি বিজয়লক্ষ্মী রাও উপস্থিত হন। সেখানে তিনি বিধায়কের অনুপস্থিতি নিয়ে প্রশ্ন তুলে পিকের টিমের প্রতিনিধি ও উপস্থিত তৃণমূল নেতাদের বিরুদ্ধে সরব হন তিনি। এরপরই দু-পক্ষের মধ্যে বচসা শুরু।পি কের টিমের সামনেই বচসা হয় দু-পক্ষের। হাতাহাতি হবার পরিস্থিতি তৈরি হয়। ঘটনা গুরুতর আকার ধারন করলে পরিস্থিতি সামাল দেয় কয়েকজন প্রাক্তন পুরপিতা।

Related Articles

Back to top button
Close