fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

ভারতী ঘোষের সাংবাদিক বৈঠকের পরই জেলার বিজেপিতে যোগদানের হিড়িক

মিলন পণ্ডা, (পূর্ব মেদিনীপুর): আগামী ২০২১  বিধানসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে এগোচ্ছে বিজেপি। দলকে শক্তিশালী করতে মাঠে নেমে পড়ল বিজেপি নেতা ও কর্মীরা। পূর্ব মেদিনীপুর জেলার বিজেপিতে দিনের-পর-দিন যোগদানের সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে। জেলার চন্ডিপুর ও এগরাতে বড়োসড়ো পরিবর্তন ঘটলো। সিপিএম, তৃণমূল ও  কংগ্রেস ছেড়ে প্রায় দুই শতাধিক কর্মী বিজেপিতে যোগদান করলেন। তাঁদের হাতে বিজেপির দলীয় পতাকা তুলে দেন কাঁথি ও তমলুক সাংগাঠনিক জেলার বিজেপির সভাপতি।

 

বৃহস্পতিবার বিকেলে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিজেপি কর্মীদের সঙ্গে দেখা করতে আসেন বিজেপি নেত্রী ভারতী ঘোষ। আর সেখানে সাংবাদিক সম্মেলন করে একুশে বিধানসভায় তৃণমূল কংগ্রেসকে উৎখাত করার হুঁশিয়ারি দিয়ে দেন। এরপরই জেলায় বিজেপিতে যোগদান করার হিড়িক পড়ে যায়। রাতে চন্ডিপুর বিধানসভায় সিপিএম ও তৃণমূল কংগ্রেস দল থেকে প্রায় একশো জন কর্মী বিজেপিতে যোগদান করেন। তাদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন তমলুক সাংগঠনীক জেলার সভাপতি নবারুণ নায়ক। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সাধারণ সম্পাদক পুলক কান্তি মন্ডল,মণ্ডল সভাপতি বিপ্লব মণ্ডল সহ বিজেপি অন্যান্য নেতৃত্বরা।

 

এদিকে আবার এগরা বিধানসভার বাসুদেবপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকায় প্রায় ৫০ জন কর্মী তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করেন। তাদের হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন কাঁথি সাংগাঠনিক জেলার বিজেপি সভাপতি অনুপ চক্রবর্তী। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন পূর্ব মেদিনীপুর জেলার সাধারণ সম্পাদক সুদাম পন্ডিত ও  অসীম মিশ্র, বিধানসভার সাংসদ প্রতিনিধি আশীষ নন্দ, কৌশিক মন্ডল সহ অন্যান্য বিজেপি নেতৃত্বরা। তৃণমূল থেকে বিজেপিতে আশা নবাগতরা বলেন,  আমফান ঘূর্ণিঝড় নিয়ে তৃণমূলের স্বজনপোষন ও একাধিক দুর্নীতি দেখেই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগদান করলাম।

Related Articles

Back to top button
Close