fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

শুধু করোনা সরঞ্জাম নয়, সব কিছু নিয়ে কথা বলেন, রাজ্যপালের সঙ্গে দিলীপকেও তোপ দাগলেন সুব্রত

অভিষেক গঙ্গোপাধ্যায়, কলকাতা: রাজ্য সরকারের দুর্নীতির প্রমান দিক। রাজ্যপাল জগদীপ ধনকরের কাছে দুর্নীতির প্রমান চাইলেন বর্ষীয়ান তৃণমূল কংগ্রেস নেতা তথা পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়। শুক্রবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তিনি রাজ্যপালের বিরুদ্ধে তোপ দেগে একথা বলেন। তিনি বলেন, ‘যদি প্রমান থাকে। প্রমান সহকারে তথ্য দিন।’ এর আগে রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে করোনার সরঞ্জাম নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে চিঠি লেখেন। পাশাপাশি বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকেও এদিন তিনি কটাক্ষ করলেন। তিনি বলেন, ‘উনি তো সব সময় বলেন ওনার কথায় আমরা গুরুত্ব দিই না খুব একটা’

রাজ্যের করোনা পরিস্থিতিতে শাসকদলের একের পর এক দুর্নীতি উঠে এসেছে। আর সেই দুর্নীতির কথা তুলে ধরে বারেবারে শাসক দলকে সজাগ করেছেন রাজ্যপাল। আর তাতেই রাজ্যপাল চক্ষুশূল হয়েছেন শাসকদলের। আর তাই এবার শাসকদলের হয়ে ব্যাট ধরলেন স্বয়ং প্রবীন তৃণমূল কংগ্রেস নেতা তথা রাজ্যের পঞ্চায়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়। তিনি বলেন, ‘রাজ্যপাল সব সময় বলছেন। শুধু করোনা সরঞ্জাম কেন? প্রমান সহ তথ্য দিলে। রাজ্য সরকার যথাযথ ব্যবস্থা নেবে নিয়ম অনুযায়ী।’

অন্যদিকে বিজেপি রাজ্য সভাপতি তথা সাংসদ দিলীপ ঘোষ বারেবারে ঘাসফুল শিবিরের বিরুদ্ধে নানা ইস্যুতে দুর্নীতির অভিযোগ তুলেছেন। সম্প্রতি তাঁর অভিযোগ ছিল কেন্দ্রের পাঠানো চাল সাধারণ মানুষের কাছে পৌঁছাচ্ছে না। আর তা নিয়ে এদিন দিলীপ ঘোষ কে তোপ দাগলেন সুব্রত মুখোপাধ্যায়। তিনি বলেন, ‘আমরা শুধু মানুষের কথায় গুরুত্ব দিই। কোনও জায়গায় মানুষ যদি কোনও অসুবিধার কথা জানায় সেই কথাকে গুরুত্ব দিয়ে আমরা নিয়মানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করি। যেমন আমফানের সময় কোন কোন জায়গায় মানুষ আমাদের দেখিয়ে দিয়েছে। আমরা গুরুত্বসহকারে সে বিষয়ে ব্যবস্থা নিয়েছি। সব সরকারই তাই করে। সব কাজ সব সময় ঠিক হয়না। তবে যেখানে ভুল ত্রুটি সেখানে আইনমাফিক ব্যবস্থা নিতে হয়। আমরাও তাই করেছি।’

এদিন পার্ক সার্কাসের জাননগর অঞ্চলে নিজের বিধানসভা এলাকায় একটি বিনামূল্যে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের উদ্বোধন করেন সুব্রত মুখোপাধ্যায়। এই কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে এলকার দুস্থ ও পিছিয়ে পরা বাচ্চাদের কম্পিউটার শেখানো হবে। বর্তমানে কম্পিউটার একটি উল্লেখ যোগ্য বিষয় সকল ক্ষেত্রে। তাই কম্পিউটার শিখে বাচ্চারা যাতে আগামী দিনে স্বাবলম্বী পারে তাই এই উদ্যগ বলে জানান সংস্থার কর্ণধার মহম্মদ জায়েদ।

Related Articles

Back to top button
Close