fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

শারীরিক অসুস্থতার জেরে মৃত্যু তৃণমূল নেতার

নিজস্ব সংবাদদাতা দিনহাটা: ডায়াবেটিস ও প্যানক্রিয়াটিস রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হল যুব তৃণমূলের ব্লক সভাপতি দিনহাটা ভিলেজ- ২ গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান জয়ন্ত দাসের। তিনি তৃণমূল যুব কংগ্রেসের দিনহাটা ১(বি) ব্লক সভাপতি ছিলেন। মঙ্গলবার শিলিগুড়ির একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে তার মৃত্যু হয়। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৩৩ বছর।

জয়ন্ত বাবু বেশ কিছুদিন ধরেই ডায়াবেটিস ও প্যানক্রিয়াটিস রোগে ভুগছিলেন। সোমবার চিকিৎসার জন্য তাকে হায়দ্রাবাদের উদ্দেশ্যে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু পথে তিনি প্রচণ্ড অসুস্থ হয়ে পড়েন। এরপর শিলিগুড়ির একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে তাকে ভর্তি করা হয়। এদিন সকালে সেখানেই তার মৃত্যু হয়। তার মৃত্যুতে দিনহাটা রাজনৈতিক মহলে শোকের ছায়া নেমে আসে।

যুব তৃণমূল নেতা গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান জয়ন্ত দাস এর মৃত্যুতে শোক প্রকাশ করেন দিনহাটার বিধায়ক উদয়ন গুহ, তৃণমূলের দিনহাটা ২ ব্লক সভাপতি বিষ্ণু সরকার, তৃণমূলের দিনহাটা শহর ব্লক সভাপতি অসীম নন্দী, দিনহাটা ১ (বি) ব্লক সভাপতি বিশ্বনাথ দে আমিন, দলের দিনহাটা শহর ব্লক সহ সভাপতি গৌরীশঙ্কর মাহেশ্বরী, তৃণমূলের দিনহাটা 2 ব্লক সহ-সভাপতি আব্দুল সাত্তার, যুব তৃণমূল নেতা তাপস দাস, যুব তৃনমূলের দিনহাটা শহর ব্লক সভানেত্রী মৌমিতা ভট্টাচার্য প্রমুখ।

তৃণমূল নেতৃত্ব বলেন জয়ন্ত দাস ছিলেন লড়াকু নেতা। যুব সংগঠনকে শক্তিশালী করে তুলতে তার ভূমিকা অনস্বীকার্য। এদিন তাঁর মৃতদেহ শিলিগুড়ি থেকে সোজা নিয়ে আসা হয় দিনহাটার আমবাড়িতে তৃণমূলের দলীয় কার্যালয়ে। সেখানে তাকে শেষ শ্রদ্ধা জানান দলীয় কর্মী সমর্থকরা। স্থানীয় শ্মশানেই তার শেষ কৃত্য সম্পন্ন হয় বলে জানা গিয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close