fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

‘ঠিক করেছেন’, শুভেন্দুকে সমর্থন করে জল্পনা বাড়ালেন তৃণমূল বিধায়ক

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক:  ‘যা করেছেন, ঠিক করেছেন, আমি শুভেন্দুর ফ্যান’। শীলভদ্র দত্তের মুখে শুভেন্দু-স্তুতি। এর পাশাপাশি আগামী নিয়েও ইঙ্গিতবাহী বার্তা দিলেন বারাকপুরের তৃণমূল বিধায়ক। বললেন,’ভবিষ্যৎই বলবে কোন দলে থাকব।’ চলতি মাসের শুরুতেই পিকে-কে নিশানা করে শীলভদ্র বলেছিলেন,”একটা বাজারি কোম্পানি এখানে টাকা নিয়ে ভোট করাতে এসেছে। তারা বলছে ভোট করাবে। আমাকে রাজনীতির জ্ঞান দিচ্ছে। এই পরিবেশে আর মানিয়ে নিতে পারছি না।”

শুভেন্দুর মন্ত্রিত্ব ছেড়ে দেওয়া রাজ্যের মানুষের স্বার্থে ক্ষতি বলে মনে করেন শীলভদ্র। তাঁর ব্যজস্তুতি ,মুখ্যমন্ত্রীই ঠিক করেন মন্ত্রী কে হবেন আর কে থাকবেন। তবে নিশ্চয়ই মুখ্যমন্ত্রী ভাল কাউকে পেয়ে গিয়েছেন। বারাকপুরের দু’বারের বিধায়ক শীলভদ্র দত্ত সম্প্রতি দল নিয়ে নিজের অসন্তোষের কথা প্রকাশ্যে এনেছিলেন। কখনও সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট, তো কখনও জনসভায় ভাষণ, সবেতেই প্রকাশ করছিলেন, এই মুহূর্তে দলকে তিনি কোন চোখে দেখছেন। এমনকী এও ঘোষণা করে দিয়েছেন যে পরবর্তী বিধানসভায় তিনি আর লড়বেন না। বারাকপুর থেকে তৃণমূল প্রার্থী হবেন অন্য কেউ। সেই ঘোষণা ছিল যথেষ্ট তাৎপর্যপূর্ণ।

আরও পড়ুন: ভ্যাকসিনের গতিবিধি জানতে আজ তিন শহরে গবেষনাগার পরিদর্শনে প্রধানমন্ত্রী মোদি

শুক্রবার শুভেন্দু অধিকারী  রাজ্য মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করার পর সরাসরি তাঁকে সমর্থন করে বসলেন শীলভদ্র দত্ত। বললেন, ”উনি যা করেছেন, ঠিক করেছেন। আমি ওঁর ফ্যান।” শোনা গিয়েছে, আগামী কয়েকদিনের মধ্যে বারাকপুরের বিধায়কও সরকারি নিরাপত্তারক্ষী ছেড়ে দেবেন। তাহলে কি শুভেন্দুর পথেই হাঁটবেন? তা এখনও স্পষ্ট করেননি বারাকপুরের বিধায়ক। তবে একদা মুকুল রায় ঘনিষ্ঠ বিধায়ক আজ হোক বা কাল, সে পথেই যাবেন, এ বিষয়ে প্রায় নিশ্চিত রাজনৈতিক মহলের একাংশ। শুভেন্দু অধিকারী বিজেপিতে যোগ দিলে, তাঁর সঙ্গে যে তৃণমূলের একটা বড় অংশই দল ছেড়ে বেরিয়ে যাবে, তা বোধহয় এখন বেশ টের পাচ্ছে খোদ তৃণমূলই । তাই সাবধানী পদক্ষেপ নিচ্ছে দল।

Related Articles

Back to top button
Close