fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

কঙ্গনাকে Y+ নিরাপত্তা দিয়ে অপচয় কেন? প্রশ্ন তুললেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: কঙ্গনা রানাউতকে নিয়ে সরগরম রাজনৈতিক মহলও। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক সম্প্রতি তাঁকে ওয়াই ক্যাটাগরির নিরাপত্তা দেবে বলেই স্থির করেছে। ঙ্গনা রানাওয়াতকে কেন Y+ স্তরের নিরাপত্তা দিচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার? এই নিয়ে এবার প্রশ্ন তুলে মোদি সরকারকে আক্রমণ করলেন তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্র। বলিউডে ট্যুইট করে শিরোনামে থাকেন বলে কঙ্গনাকে কটাক্ষ করে মহুয়ার অভিযোগ, তার জন্য ওয়াই প্লাস ক্যাটাগরির নিরাপত্তার বন্দোবস্ত করে আসলে অর্থের অপচয় করছে কেন্দ্রীয় সরকার।

সুশান্ত মৃত্যুর ঘটনার সূত্রে বলিউড এবং মহারাষ্ট্র পুলিশের বিরুদ্ধে একের পর এক চাঞ্চল্যকর অভিযোগ তুলে শিরোনামে রয়েছেন কঙ্গনা। সম্প্রতি মহারাষ্ট্রের শিবসেনা-এনসিপি জোট সরকারকেও আক্রমণ করেছেন তিনি। এর পরই কঙ্গনাকে ওয়াই প্লাস নিরাপত্তা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র। যে স্তরের নিরাপত্তা দেশের হাতেগোণা কয়েকজন ভিআইপি পান। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে বিঁধে ট্যুইটারে মহুয়া লিখেছেন, “ভারতে লক্ষ মানুষের ক্ষেত্রে পুলিশ সংখ্যার অনুপাত ১৩৮ জন। তা সত্ত্বেও একজন বলিউড অভিনেত্রী কেন ওয়াই ক্যাটাগরির নিরাপত্তা পাবেন। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এভাবে কী নিরাপত্তাকর্মীদের সঠিক ব্যবহার করা হল?”

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছেন মহারাষ্ট্রের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনীল দেশমুখও। তবে এসব বিষয়ে কান দিতে নারাজ বলিউডের কুইন। পরিবর্তে কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তের পরই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন কঙ্গনা। তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছেন, ‘‘ফ্যাসিস্টরা যে দেশপ্রেমিকদের কণ্ঠরোধ করতে পারবে না, সেটা আবার প্রমাণিত হল। অমিত শাহের প্রতি আমি কৃতজ্ঞ। তিনি একজন ভারতকন্যাকে সম্মান দিয়েছেন, তাঁর আত্মসম্মান এবং গর্ব রক্ষা করেছেন। তিনি চাইলে কিছুদিন পরও আমাকে মুম্বই যাওয়ার কথা বলতে পারেন।”

আরও পড়ুন: রিয়া চক্রবর্তীকে গ্রেফতার করল NCB

উল্লেখ্য, অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর থেকেই মহারাষ্ট্র সরকার এবং মুম্বই পুলিশের বিরুদ্ধে একের পর এক তোপ দেগে চলেছিলেন অভিনেত্রী। কঙ্গনার দাবি ছিল, অভিনেতার অস্বাভাবিক মৃত্যুর তদন্তে গাফিলতি করছে মুম্বই পুলিশ। অভিনেত্রী মন্তব্য করেন, তিনি বলিউড মাফিয়াদের থেকে মুম্বই পুলিশকে বেশি ভয় পান। আবার এই নিয়ে চাপানউতোর চলার পরে কঙ্গনা মুম্বইকে ‘পাক অধিকৃত কাশ্মীর’-এর সঙ্গেও তুলনা করেন। তাতেই আগুনে ঘি পড়ে। অভিনেত্রীকে পালটা আক্রমণ শুরু করেন শিবসেনা নেতা-সাংসদরা। মুম্বইয়ে না ঢোকার ‘হুমকি’ দেওয়া হয়। কঙ্গনাও জানান, তিনি ৯ সেপ্টেম্বর মুম্বই আসছেন। এরপরই কেন্দ্রের তরফে অভিনেত্রীর জন্য ওয়াই ক্যাটেগরির নিরাপত্তার বন্দোবস্ত করা হয়েছে। বলিউডের প্রথম তারকা হিসেবে সিআরপিএফ-এর নিরাপত্তা পাবেন কঙ্গনা। একজন পার্সোনাল সিকিউরিটি অফিসার ছাড়াও কঙ্গনার নিরাপত্তায় কম্যান্ডো সহ ১১জন সশস্ত্র নিরাপত্তারক্ষী থাকবেন।

 

 

 

 

 

Related Articles

Back to top button
Close