fbpx
গুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

প্রকাশ্যে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব, দলীয় প্রার্থীদের পরাজয়ের মধ্যে ষড়যন্ত্রের গন্ধ পাচ্ছেন কার্তিক ঘোষ

মিল্টন পাল,মালদা: ফের প্রকাশ্যে তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দল। এবার দলের প্রার্থীদের পরাজয় নিয়ে ষড়যন্ত্রের অভিযোগ একাংশের নেতার বিরুদ্ধে তুললেন প্রকাশ্য মঞ্চে। এমনকি ভোটে পরাজয় হলে নেতা-নেত্রীদের নারকো অ্যানালাইসিস টেস্ট করা হবে। তাহলেই প্রকাশ হয়ে যাবে কারা সত্যিকারের ভোট করেছে, আর কারা ষড়যন্ত্র করেছে। কর্মী সভায় এই মন্তব্য করলেন পুরাতন মালদা পৌরসভার প্রসাশক মন্ডলীর সদস্য কার্তিক ঘোষ। তিনি ছাড়াও এদিনের মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন জেলা সভাপতি তথা সাংসদ মৌসম নুর সহ জেলা নেতৃত্ব।

নেতৃত্বের একাংশ বড় বড় কথা বলে । কিন্তু ভোটের সময় ষড়যন্ত্র করে। এই সব নেতারা দলে থেকে দলের ক্ষতি করছে। এই সব নেতাদের থেকে কর্মীরা যেন দূরে থাকেন। এই দাবি করলেন মহিলা তৃণমূল কংগ্রেসের সভানেত্রী চৈতালি ঘোষ সরকার। গত বিধানসভা নির্বাচনে মালদাতে একটি আসনেও জয়লাভ করতে পারেনি তৃণমূল কংগ্রেস। পরাজিত হয়েছিলেন রাজ্যের দুই মন্ত্রী কৃষ্ণেন্দু নারায়ণ চৌধুরী ও সাবিত্রী মিত্র। পুরাতন মালদা

আসনটি থেকে তৃণমূলের জনপ্রিয় নেতা দুলাল সরকার পরাজিত হন কংগ্রেসের অর্জুন হালদার-এর কাছে।ইতিমধ্যেই আসন্ন নির্বাচন উপলক্ষে প্রত্যেক বিধানসভা কেন্দ্রিক কর্মী সম্মেলন শুরু হয়েছে তৃণমূলের পক্ষ থেকে। পুরাতন মামলায় তৃণমূলের কর্মী সম্মেলনে পুরাতন মালদা পৌরসভার প্রাক্তন চেয়ারম্যান কার্তিক ঘোষ প্রকাশ্যে দলের নেতাদের একাংশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে দুলাল সরকার গত বিধানসভা নির্বাচনে হারিয়ে যাওয়ার অভিযোগ তুলেছেন।

তাঁর দাবি, এই নেতারা এখনও বহাল ভাবে ঘুরে বেড়াচ্ছে। দলের মঞ্চে বসে বড় বড় কথা বলছে আর পেছনে পেছনে ষড়যন্ত্র করছে। এদের জন্যই দলীয় নেতৃত্ব হেরেছে। কারা ভোট করেছে আর কারা করেনি তা নারকো টেস্ট করলে পরিষ্কার হয়ে যাবে।মহিলা সভা নেত্রী চৈতালী ঘোষ সরকার বলেন, যে নেতারা দলের প্রার্থীর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে এবং বিরোধীদের সাথে হাতে হাত মিলিয়ে তাদের পরাজিত করে এই সব নেতাদের থেকে কর্মীদের দূরে থাকা প্রয়োজন। এই সব নেতারা দলের ক্ষতি করছে। প্রয়োজনে তাদেরকে ছুঁড়ে ফেলে দিন।আর যারা দলের সমালোচনা করবে তাদের চিহ্নিত করুন।

প্রকাশ্যে তৃণমূলের প্রথম সারির এই দুই নেতার মন্তব্যে কিছুটা অস্বস্তিতে তৃণমূলের জেলা নেতৃত্ব। তৃণমূলের জেলা সভানেত্রী মৌসম বেনজির নূর বলেন,দল সব দিকে নজর রেখেছে সঠিক সময়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। নারকো টেস্টের কথা যে নেতা বলেছে সে কিছুটা আবেগ তাড়িত হয়ে বলে ফেলেছে। বিজেপির মালদা জেলার সহ-সভাপতি অজয় গঙ্গোপাধ্যায় বলেন,কার্তিক ঘোষ চৈতালি ঘোষ সরকার সঠিক কথাই বলেছে। এই মঞ্চে যেসব নেতারা বসেছে তারা এই মঞ্চ থেকে নেমে তাদের প্রার্থীর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে। তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দল এর আগেও আমরা দেখেছি। কাটমানি , আর গোষ্ঠী কোন্দলে এই দল টা খুব দ্রুত উঠে যাবে।

 

Related Articles

Back to top button
Close