fbpx
কলকাতাহেডলাইন

কেক, মিষ্টি, রসগোল্লা নিয়ে পুলিশ দিবসে রাজ্য জুড়ে পুলিশকে সংবর্ধনা দিতে প্রস্তুত তৃণমূল

অভীক বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতা: পুলিশের ক্ষোভ প্রশমনে ইতিমধ্যেই একাধিক ব্যবস্থা গ্রহণ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পুলিশ ওয়েলফেয়ার বোর্ড নতুন করে গড়ার পাশাপাশি তাদের পেশাকে মর্যাদা দিতে ১ সেপ্টেম্বর ঘোষণা করা হয়েছে পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ দিবস। তবে শুধু মাত্র দিন ঘোষণাতেই থেমে থাকতে চাইছে না তৃণমূল। নবান্ন থেকে থানায় থানায় ফুল মিষ্টি ও কেকের মাধ্যমে পুলিশকে সংবর্ধনার মাধ্যমে আরও বেশি করে তাদের কাছে পৌঁছনোর চেষ্টা করতে হবে, এমনটাই দলের তরফে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

আর এই কাজে শুধু তৃণমূলকর্মীরা নয়, যুক্ত থাকছে বলা হয়েছে স্থানীয় কাউন্সিলর, বিধায়ক থেকে শুরু করে মন্ত্রীদেরও। পরিকল্পনার পুরোভাগে আছেন সুব্রত মুখোপাধ্যায় , চন্দ্রিমা ভট্রাচার্য , পার্থ চট্টোপাধ্যায় থেকে ফিরহাদ হাকিমরা। কেউ উপহার হিসেবে বিশাল বড় কেকের অর্ডার দিয়েছেন, কেউ রসগোল্লার হাঁড়ি সাজাতে বলেছেন, আবার ফুল আর মিষ্টির প্যাকেট দিয়ে উপহারের ডালি সাজাচ্ছেন। এমনকি পুর-প্রশাসক ফিরহাদ হাকিমের নির্দেশে শংসাপত্র আর ফুলের তোড়া সাজাচ্ছে কলকাতা পুরসভাও।

প্রসঙ্গত, রাজ্য প্রশাসনের অন্যতম গুরুতম অঙ্গ হল পুলিশ। কিন্তু দীর্ঘদিন ধরে বহু অপ্রাপ্তি এবং সর্বোপরি করোনার সময়ে বেশ কিছু অব্যবস্থার জেরে বেশ কয়েকবার পুলিশে বিদ্রোহের আগুন জ্বলে ওঠে। তাই পরিস্থিতি সামাল দিতে দ্রুত আসরে নামার পরে আরও পুলিশের সুবিধার জন্য বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ ঘোষণা করে রাজ্য প্রশাসন। কলকাতা ও রাজ্য পুলিশের কল্যাণ পর্ষদের নোডাল অফিসার হিসেবে নিয়োগ করা হয়েছে কালীঘাট থানার ওসি শান্তনু সিংহ বিশ্বাসকে। এছাড়াও পুলিশ দিবস ঘোষণা করে তাদের সংবর্ধনার মাধ্যমে সম্পর্কের চিড় খাওয়া যোগসূত্র আরও মজবুত করতে চাইছে শাসকদল।

প্রাথমিক ভাবে ঠিক হয়েছে, নবান্ন সভাঘরে ১ সেপ্টেম্বর বেলা ১ টার সময় পুলিশ বাহিনীকে সংবর্ধিত করবেন মুখ্যমন্ত্রী। কোভিড যুদ্ধে বাহিনীর অসামান্য অবদানের জন্য পুরস্কৃত করা হবে পুলিশকর্মীদেরও। মুখ্যমন্ত্রীর এই অনুষ্ঠান ছাড়াও সকাল থেকে স্থানীয় থানায় থানায় যাবেন রাজ্যের গুরুত্বপূর্ণ মন্ত্রীরা। ১ সেপ্টেম্বর বেলা ১১ টা নাগাদ গড়িয়াহাট থানায় তিন ফুট বাই তিন ফুটের এক বিশাল কেক উপহার নিয়ে যাবেন মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়। আবার ওই দিনই সকাল ১১ টায় নিউ মার্কেট থানার কর্মরত পুলিশ বাহিনীকে সংবর্ধিত করবে কলকাতা পুরসভা। উপস্থিত থাকবেন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। এছাড়া রসগোল্লার হাঁড়ি নিয়ে ওইদিনই এয়ারপোর্ট, নিমতা থানা সহ চার থানায় যাবেন মন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য । ঠাকুরপুকুর, বেহালা, সরশুনা থানায় মিষ্টির প্যাকেট হাতে যাবেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। এছাড়াও বিভিন্ন জেলা, কমিশনারেট নিজেদের মতো করে কিছু অনুষ্ঠান করতে পারে।

পুলিশ সূত্রের দাবি, মুখ্যমন্ত্রী পুলিশ দিবসের অনুষ্ঠানে এ সব বলার পাশাপাশি পুলিশের প্রতি কিছু নির্দেশও দিতে পারেন। তবে সে দিনের অনুষ্ঠান পুরোটাই হবে ভিডিও-মাধ্যমে। শীর্ষ পদস্থ পুলিশ অফিসারদের কে কে কোন কোন দফতর থেকে ভিডিও মাধ্যমে যোগ দেবেন তার তালিকাও পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। সব মিলিয়ে বিধানসভা ভোটের আগে বাহিনীর অভাব-অভিযোগ যাতে বিক্ষোভের চেহারা না নেয়, তার জন্য পুরোমাত্রায় তৎপর তৃণমূল তথা রাজ্য প্রশাসন।

Related Articles

Back to top button
Close