fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

আজ কি অনুব্রত কন্যা সুকন্যার ভাগ্য পরীক্ষা! হাই কোর্টের নির্দেশের দিকে নজর সকলের

যুগশঙ্খ, ওয়েবডেস্ক: এসএসসি দুর্নীতি কাণ্ডে শিক্ষাপ্রতিমন্ত্রীর পদ হারিয়েছেন পরেশ অধিকারী। মেয়ে অঙ্কিতা অধিকারীকে বেআইনিভাবে চাকরি পাইয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছিল পরেশ অধিকারীর বিরুদ্ধে। তবে হাইকোর্টের নির্দেশে চাকরি পেয়েছেন ববিতা সরকার। এবার সেই স্কুলেই বেআইনি নিয়োগে নাম জড়াল তৃণমূল নেতা অনুব্রত মণ্ডলের। তার মেয়েকে বেআইনিভাবে প্রাথমিক স্কুলে শিক্ষিকার চাকরি পাইয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। আজ, বৃহস্পতিবার হাইকোর্টে অনুব্রত কন্যা সুকন্যাকে হাজিরা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। গতকাল এই নিদেশ দেন বিচারপতি অভিজিত গঙ্গোপাধ্যায়।

গরুপাচার কাণ্ডে সিবিআই হেফাজতে রয়েছেন বীরভূমের তৃণমূলের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। বুধবার সিবিআইয়ের একটি দল অনুব্রত’র বোলপুরের নীচুপট্টির বাড়িতে পৌঁছয় সুকন্যাকে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য। কারণ সুকন্যার নামে ১০ দলিল মিলেছে। গরু পাচার কাণ্ডে অনুব্রত কন্যাকে জেরা করা অত্যন্ত প্রয়োজনীয় মনে করছে সিবিআই। কিন্তু গতকাল অনুব্রত বাড়িতে গেলে মেয়ে জানিয়ে দেন, কিন্তু এখন কোনও কথা বলতে পারবে না। কারণ বাবা সিবিআই হেফাজতে, মাকে হারিয়েছেন তিনি। এর পরেই মাত্র ১০ মিনিটের মধ্যে অনুব্রত’র বাড়ি থেকে কেন্দ্রীয় তদন্ত আধিকারিকরা বেরিয়ে আসেন।

অন্যদিকে প্রাথমিক স্কুলে শিক্ষিকার চাকরি পাইয়ে দেওয়ার ঘটনায়  বুধবার বিস্ফোরক অভিযোগ ওঠে কলকাতা হাইকোর্টে। আইনজীবী ফিরদৌস শামিমের করা অভিযোগের ভিত্তিতে আদালতে উঠে আসে ছ’টি নাম। শুধুমাত্র সুকন্যা মণ্ডল নন, অভিযোগ তাঁর সঙ্গে অনুব্রতর আরও ঘনিষ্ঠ ছ’জনও চাকরি পেয়েছিলেন অনুব্রতর প্রভাবে। আর এই ছ’জনকেই আদালতে হাজিরার নির্দেশ দিয়েছেন বিচারপতি। তালিকায় রয়েছে কেষ্ট-কন্যা সুকন্যা মণ্ডল। রয়েছেন তাঁর পার্সোনাল অ্যাসিস্টেন্ট অর্ক দত্ত। রয়েছে অনুব্রত ভাই সুমিত মণ্ডলের নামও। এ ছাড়া তালিকায় রয়েছেন অনুব্রতর ভাইপো সাত্যকি মণ্ডলও। এ ছাড়া তালিকায় রয়েছে ঘনিষ্ঠ দু’জনের নাম। সুজিত বাগদি ও কস্তুরি চৌধুরী নামে ঘনিষ্ঠ দু’জনের নামও।

 

Related Articles

Back to top button
Close