fbpx
আন্তর্জাতিকহেডলাইন

বড়সড় প্রশ্নের মুখে রাশিয়ার ভ্যাকসিন! কোনও নিয়ম মানা হয়নি, পদত্যাগ বিশিষ্ট চিকিৎসকের

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: বিশ্বের প্রথম করোনার ভ্যাকসিন বের করে রীতিমতো শোরগোল ফেলে দিয়েছিল রাশিয়া। এমনকী  প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের মেয়েকে সেই ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হয় বলে জানা যায়। তবে এই  ঘোষণার পরপরই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে যে, বিশ্বের তাবড় বিজ্ঞানীরা যখন করোনা প্রতিষেধকের সঠিক ভ্যাকসিন নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালিয়ে যাচ্ছেন, তখন রাশিয়া কী করে এত তাড়াতাড়ি ভ্যাকসিন আবিষ্কার করল? নিয়ম মেনে সেই ভ্যাকসিনের ট্রায়ালই বা কবে হল? আশঙ্কা যে অমূলক নয়, তার প্রমাণ মিলল এবার।

সামান্য নিয়মকানুন না মেনে যেভাবে ভ্যাকসিনকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে, তার তীব্র বিরোধিতা করে ইস্তফা দিলেন রুশ স্বাস্থ্য মন্ত্রকের এথিক্স কমিটির সদস্য এবং খ্যাতনামা চিকিৎসক অ্যালেকজান্ডার চুচলিন।চিকিৎসাবিধি ও স্বাস্থ্যনীতির সামান্য নিয়ম না মেনেই ভ্যাকসিন আবিষ্কারের ঘোষণা করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন চুচলিন। আর দেশের এমন বিখ্যাত চিকিৎসকের পদত্যাগের ফলে অস্বস্তিতে পড়েছেন প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। উল্লেখ্য, রাশিয়ায় চিকিৎসা সংক্রান্ত সব ধরণের নীতি নির্ধারণ করে স্বাস্থ্য মন্ত্রকের অধীনে থাকে এথিকস কাউন্সিল। সেই কাউন্সিলেরই অন্যতম সদস্য ছিলেন চুচলিন।

ওই চিকিৎসকের অভিযোগ, যে কোনও ভ্যাকসিনের ট্রায়ালের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ তৃতীয় পর্যায়ের ট্রায়াল না করেই ভ্যাকসিন আবিষ্কারের ঘোষণা করা হয়েছে। এমনকী তিনি বারবার এ নিয়ে বললেও তাতে কর্ণপাত করেনি রুশ প্রশাসন। সেই কারণেই পদত্যাগ করেছেন তিনি। শুধু তাই নয়, ভ্যাকসিন প্রস্তুতকারী মস্কোর গামালেয়া রিসার্চ সেন্টারের ডিরেক্টর আলেকজান্ডার গিন্টসবার্গ ও দেশের ভাইরোলজি বিশেষজ্ঞদের অন্যতম সের্গেই বরিসেভিচের বিরুদ্ধেও অভিযোগ করে চুচলিন বলেন, ‘এই দুই চিকিৎসক ভ্যাকসিন তৈরিতে তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে চিকিৎসা বিজ্ঞানের কোনও নিয়ম নীতির তোয়াক্কাই করেননি।’ তাঁর সাফ কথা, ‘এই ভ্যাকসিন ঠিক ভাবে করা হয়নি। নৈতিক ভাবে চিকিৎসা বিজ্ঞানের নীতি ভঙ্গ করা হয়েছে।’ রাশিয়ার সাধারণ মানুষ ও চিকিৎসক মহলেও এই ভ্যাকসিন নিয়ে প্রশ্ন উঠছে।

Related Articles

Back to top button
Close