fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

হাতির তাণ্ডবে যানবাহন চলাচলের সমস্যা ঝাড়গ্রামে

সুদর্শন বেরা, ঝাড়গ্রাম: ঝাড়গ্রাম জেলা জুড়ে হাতির তাণ্ডব অব্যাহত রয়েছে। যার ফলে ঝাড়গ্রাম জেলার নয়াগ্রাম, সাঁকরাইল, ঝাড়গাম, বিনপুর, লালগড়, জামবনি থানা এলাকায় হাতির তাণ্ডবে ফসলের ক্ষতির আশঙ্কা করছেন এলাকার বাসিন্দারা। ইতিমধ্যে মাঠের পাকা ধান মাঠেই নষ্ট করে দিচ্ছে হাতির দল । যার ফলে চিন্তায় পড়েছেন গ্রামবাসীরা।

একদিকে যখন মাঠের পর মাঠে গিয়ে হাতির দল পাকা ধান চাষের নষ্ট করছে। ঠিক সেইসময় হাতির দল ঝাড়গ্রাম জেলার ঝাড়গ্রাম ব্লকের গুপ্তমনি এলাকায় ৬  নম্বর জাতীয় সড়ক দিয়ে প্রতিদিনই যাতায়াত করছে। যার ফলে যানবাহন চলাচলের  ক্ষেত্রে সমস্যা দেখা দিয়েছে। রবিবার সকালে গুপ্তমনি এলাকায় প্রায় চল্লিশটি হাতি ৬ নম্বর জাতীয় সড়ক দিয়ে যাতায়াত করে। যার ফলে দু’ঘণ্টা ৬ নম্বর জাতীয় সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। ঠিক একইভাবে সোমবার সকালেও ওই ৪০টি দাঁতাল  হাতি গুপ্তমনি এলাকায় ৬  নম্বর জাতীয় সড়ক দিয়ে সাঁকরাইল এর দিকে যায় ।

                    আরও পড়ুন: মা দুর্গার ছবি বিকৃত করে নির্বাচনী প্রচার, ক্ষোভে ফুঁসছে হিন্দুরা

যার ফলে প্রায় তিন ঘন্টা যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। একইভাবেহাতির দল কখনো রাস্তায় গাড়ি দাঁড় করিয়ে গাড়ি থেকে খাবার খাচ্ছে, কখনো আবার রাস্তার উপর দাঁড়িয়ে পথ অবরোধ করে তান্ডব চালাচ্ছে। যার ফলে ৬ নম্বর জাতীয় সড়ক দিয়ে যানবাহন চলাচল করার ক্ষেত্রে বাধা হয়ে দাঁড়াচ্ছে। গত কয়েকদিন যেভাবে৬ নম্বর জাতীয় সড়কের  উপর হাতি দাপিয়ে বেড়াচ্ছে তাতে বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটার আশঙ্কা করছেন অনেকেই। বিষয়টি বনদফতরকে জানানো হয়েছে। বনদপ্তর হাতির গতিবিধির ওপর নজর রাখছে বলে জানায়।

          আরও পড়ুন:  সক্রিয় জঙ্গি মডিউল, পুলওয়ামায় সন্ত্রাসবাদীদের হামলায় জখম জওয়ান  

সোমবার সকালে যেভাবে চল্লিশটি হাতি গুপ্তমনি দিয়ে সাঁকরাইল এর দিকে যায় তা দেখে অনেকেই অবাক। কখনো সকালবেলা কখনো দুপুর বেলা ও সন্ধ্যাবেলা  ৬ নম্বর জাতীয় সড়কে হাতি দাপিয়ে বেড়াচ্ছে । পাশাপাশি ঝাড়গ্রাম জেলার  বিনপুর এক ব্লকের মালাবতী জঙ্গল এলাকায় থাকা ৩০ টি হাতি বিভিন্ন গ্রামে ঢুকে ব্যাপক ফসলের ক্ষতি করছে। ইতিমধ্যে কয়েকটি মাটির বাড়ির  ভেঙে দিয়েছে। যখন মাঠ থেকে পাকা ধান ঘরে তোলার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছেন চাষীরা, ঠিক সেইসময় পাকা ধানে মই  দিয়ে দিলো হাতির দল। তাই ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কা করছেন ওই এলাকার গ্রামবাসীরা। দুর্গাপুজোর আগে যেভাবে হাতির দল তাণ্ডব শুরু করেছে তাতে অনেকেই ব্যাপক ফসলের আশঙ্কা করছেন।

 

তবে বনদফতর শুধু নজরদারির কথা বলে চুপ করে থাকে নি। বন দফতরের পক্ষ থেকে ঝাড়গ্রাম জেলার যে এলাকাগুলিতে হাতির দল রয়েছে সেই এলাকার বাসিন্দাদের সতর্ক থাকার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে  । সেই সঙ্গে হাতির যাত্রা পথে বাধা দিতে নিষেধ করা হয়েছে। ৬ নম্বর  জাতীয় সড়কের উপর দিয়ে হাতি কখনো কখনো ঝাড়গ্রাম এলাকায় প্রবেশ করে কখনো আবার খড়গপুর গ্রামীণ এলাকায় চলে যায়। ওই এলাকাটি হাতির যাতায়াত এর রাস্তা বলে বনদফতর সূত্রে জানা যায় । তাই ওই ঝাড়গ্রামের গুপ্তমনি এলাকায় নিরাপত্তা ব্যবস্থা না থাকায়  সমস্যায় পড়েছেন এলাকার বাসিন্দারা।

 

Related Articles

Back to top button
Close