fbpx
গুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

মর্মান্তিক দুর্ঘটনা! পাহাড় থেকে গড়িয়ে পড়ে খাদে গাড়ি, মৃত্যু ৫ বন্ধুর

কৃষ্ণা দাস, শিলিগুড়ি: স্বাধীনতা দিবসের দিন আনন্দ করে পাহাড়ে ঘুরতে গিয়ে খাদে পড়ে মৃত্যু হল পাঁচজনের। মর্মান্তিক এই দুর্ঘটনাটি ঘটেছে কার্শিয়াংয়ের কার্গিল দ্বারে। এদের মধ্যে চার যুবক শিলিগুড়ির ২২ নম্বর ওয়ার্ডের রথখোলার বাসিন্দা। আর একজন নাবালক শিলিগুড়ির ২৬ নম্বর ওয়ার্ডের মিলনপল্লির বাসিন্দা। তল্লাশি চালিয়ে রবিবার রাতে দুজনের দেহ উদ্ধার হয়। সোমবার সকল থেকে কার্শিয়াং পুলিশ ও দমকলের দীর্ঘক্ষণ তল্লাশির পর বাকি তিনজনের মৃতদেহ উদ্ধার হয়। মৃতদেহগুলি উদ্ধার করে কার্শিয়াং হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।

জানা গিয়েছে, শিলিগুড়ির রথখোলার বাসিন্দা ঋষভ দাস, বিক্রম দাস, অভ্রনীল কুন্ডু, সুব্রত দাস সহ শিলিগুড়ির মিলনপল্লির বাসিন্দা রাজ সিং মোট পাঁচ বন্ধু মিলে চারচাকার গাড়ি করে ১৫ আগস্ট প্রথমে লাটাগুড়ি ঘুরতে যান। সেখান থেকে বাড়ি ফিরে তারা পাহাড়ে যান। বাড়ির লোকজন পরদিন সকাল থেকেই ফোনে তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে তাদের পাচ্ছিল না। শেষে রবিবার সন্ধ্যায় শিলিগুড়ি থানায় নিখোঁজ ডাইরি করতে যায় পরিবারের লোকজন।

শিলিগুড়ি থানার পুলিশ কার্শিয়াং থানায় যোগাযোগ করে একটি গাড়ি দুর্ঘটনার কথা জানতে পারে। সোমবার সকালে প্রথমে খবর পাওয়া যায় দুজনে মৃতদেহ উদ্ধার হয়েছে। বাকিদের খোঁজে তল্লাশি চালানো হচ্ছে। খবর ছড়িয়ে পড়তেই এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে।

আরও পড়ুন:করোনা আক্রান্ত রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী কৃষ্ণেন্দু নারায়ণ চৌধুরী

স্থানীয় কো-অর্ডিনেটার রিঙ্কি দাস সহ স্থানীয় বাসিন্দারা রথখোলা এলাকায় যুবকদের বাড়ির পাশে জড়ো হতে থাকে। পরিবারের লোকজন রওনা দেয় কার্শিয়াংয়ের উদ্দেশ্যে। এই ঘটনায় এলাকায় নেমে আসে শোকের ছায়া।

রিঙ্কি দাস জানান, লাটাগুড়িতে ঘুরতে গিয়ে পাঁচ বন্ধু বাড়িতেও ফিরে আসেন। পরে আবার তারা পাহাড়ের উদ্দেশ্যে রওনা হন। পরদিন তাদের কোনও খোঁজ পাচ্ছিল না বাড়ির লোকজন। এদিকে ২৪ ঘন্টা না হলেও নিখোঁজ ডাইরি করা যায় না। তাই সারাদিন তাদের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হয়। পরে সন্ধ্যার দিকে শিলিগুড়ি থানায় নিখোঁজ ডাইরি করতে গেলে কার্শিয়াং থানায় যোগাযোগ করতে বলা হয়।

রথখোলা এলাকার চারজনের মধ্যে দুজন কলেজে পড়ে তবে মোট তিনজন পড়াশুনা করত বলে তিনি জানতে পেরেছেন। রথখোলার যুবকদের প্রত্যেকের বয়সই ২০ থেকে ২২ এর মধ্যে। অন্যদিকে মিলনপল্লির বাসিন্দা রাজ সিংএর বয়স প্রায় ১৭ বছর। এই ঘটনায় এলাকায় নেমে এসেছে শোকের ছায়া।

কার্শিয়াংএর এসপি কে অমরনাথ বলেন, ১৫ আগস্ট রাতে কার্শিয়াংয়ের কার্গিল দ্বারের কাছে একটি গাড়ি ৩০০ ফুট খাদে পড়ে যায়। গাড়িতে পাঁচজন ছিলেন। পাঁচজনই শিলিগুড়ির বাসিন্দা। প্রত্যেকের মৃতদেহ উদ্ধার হয়েছে। কার্শিয়াংয়ে তাদের ময়নাতদন্ত করা হচ্ছে। গাড়িটির কিছু অংশ উদ্ধার হয়েছে। গাড়ির মূল অংশ উদ্ধার হয়নি। সেটি খাদের অনেক নিচে পড়ে গিয়েছে। গাড়িটি উদ্ধারের চেষ্টা চালানো হচ্ছে। গাড়িটির মূল অংশ উদ্ধারের পর তদন্ত করে জানা যাবে দুর্ঘটনার কারণ।

Related Articles

Back to top button
Close