fbpx
গুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

উত্তরবঙ্গে রেল দুর্ঘটনা, বাড়ছে নিহত-আহতের সংখ্যা, দ্রুত চিকিৎসার নির্দেশ মুখ্যমন্ত্রীর, খোঁজ নিলেন প্রধানমন্ত্রী

যুগশঙ্খ, ওয়েবডেস্কঃ উত্তরবঙ্গের রেল দুর্ঘটনা মনে করিয়ে দিল জ্ঞানেশ্বরী ট্রেন দুর্ঘটনার কথা। ২০১০ সালের পশ্চিম মেদিনীপুরে জ্ঞানেশ্বরী এক্সপ্রেস ট্রেন দুর্ঘটনা কেড়ে নিয়েছিল ১৪১ জনের তরতাজা প্রাণ।  বৃহস্পতিবার ফের এই রকমই এক ভয়াবহ রেল দুর্ঘটনার সাক্ষী থাকল ময়নাগুড়ির দোমহনি। এখনও পর্যন্ত এই ঘটনায় ৫ জন নিহত ও ৪৫ জন আহত হয়েছে বলে জানা গেছে। আহতদের নিকর্টবর্তী ময়নাগুড়ি ও জলপাইগুড়ি জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তৈরি রাখা হয়েছে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালটিকে। ঘটনাস্থলে রয়েছে রেলের উচ্চ পদস্থ আধিকারিকরা। রয়েছেন গৌতম দেব।

 

ঘটনায় উচ্চ পর্যায়ের তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে রেল। আহতদের দ্রুত চিকিৎসার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছ থেকে দুর্ঘটনার খোঁজ নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ঘটনাস্থলে আসছেন রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব। নিহতদের ১ লক্ষ টাকা, গুরুর আহতদের ৫০ হাজার ও  স্বপ্ল আহতদের ২৫ হাজার টাকার ক্ষতিপূরণে ঘোষণা করা হয়েছে।

 

বৃহস্পতিবার ময়নাগুড়ির দোমহনি কাছে বগিচ্যুত হয় দোমহনি এলাকায় পাটনা থেকে গুয়াহাটিগামী ১৫৩৬৬ বিকানের এক্সপ্রেস। ১২টি বগি লাইনচ্যুত হয়েছে। একটি বগি উলটে জলে পড়ে গিয়েছে বলে খবর।

এখনও পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী ৪০ জনকে আহত উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। এদের মধ্যে ২৪ জনকে উদ্ধার করে জলপাইগুড়ি জেলা হাসপাতালে  ও ১৬ জনকে ময়নাগুড়ি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ১০ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। ইতিমধ্যেই তাদের উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজে স্থানান্তর করা হয়েছে বলে রেল সূত্রে খবর।

 

রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব জানিয়েছে, তিনি ব্যক্তিগতভাবে এই ঘটনার উপর নজর রাখছেন। ইতিমধ্যেই তিনি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছেন। উদ্ধারকাজের গতিবিধি সম্পর্কেও প্রধানমন্ত্রীকে জানিয়েছেন তিনি।

ঘটনায় উদ্বিগ্ন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এদিন কোভিড পরিস্থিতি নিয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক করছিলেন প্রধানমন্ত্রী। তখনই এই রেল দুর্ঘটনা ঘটে। মুখ্যমন্ত্রী খবর পাওয়া মাত্রই দ্রুত প্রশাসনকে তৎপর হতে নির্দেশ দেন। কথা বলেন জলপাইগুড়ি জেলাশাসক  মোমিতা গোদারা বসুর সঙ্গে। জেলাশাসককে দ্রুত ব্যবস্থা খতিয়ে দেখার নির্দেশ দেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রীর কাছ থেকেই দুর্ঘটনা সম্পর্কে খোঁজ নেন প্রধানমন্ত্রী।

রেলওয়ে হেল্পলাইন নাম্বার – 03612731622, 03612731623:

 

 

Related Articles

Back to top button
Close