fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

স্বাধীনতা দিবসের দিন বিজেপির শহিদ কর্মীদের শ্রদ্ধাঞ্জলি, ১৬ আগস্ট প্রত্যেক বুথে গণতন্ত্র বাঁচাও কর্মসূচি

শরণানন্দ দাস, কলকাতা: বিগত কয়েক বছরে তৃণমূল কংগ্রেসের রাজনৈতিক হিংসার শিকার হয়ে প্রাণ হারিয়েছেন বিজেপির নেতা, কর্মীরা। স্বাধীনতা দিবসের দিন সেইসব শহিদ পরিবারের বাড়িতে গিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন বিজেপি কর্মীরা। বৃহস্পতিবার বিজেপির কেন্দ্রীয় সম্পাদক রাহুল সিনহা বিজেপি দফতরে সাংবাদিক সম্মেলনে এ কথা জানান।

তিনি বলেন, ‘ আগামী ১৫ আগস্ট স্বাধীনতা দিবসের দিন বিজেপির যেসব কর্মী, নেতা তৃণমূলের আক্রমণের শহিদ হয়েছেন তাঁদের বাড়ি গিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করবেন কর্মীরা। তাছাড়া ওইদিন বিজেপির কর্মীরা নিজের বাড়িতে জাতীয় পতাকার পাশাপাশি দলীয় পতাকা উত্তোলন করবেন।’ তিনি একইসঙ্গে জানালেন,’ আগামী ১৬ আগস্ট প্রত্যেক বুথে বুথে পশ্চিমবঙ্গের অরাজকতার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে ‘গণতন্ত্র বাঁচাও, পশ্চিমবঙ্গ বাঁচাও’ কর্মসূচি পালন করবেন।’ রাহুল সিনহা এদিন ‘ জল জীবন মিশন’ কর্মসূচিতে রাজ্য সরকারের ব্যর্থতায় ছবি তুলে ধরেন।

তিনি বলেন, ‘ গত বছর আগস্ট মাসে প্রধানমন্ত্রী ১০০ শতাংশ বাড়িতে নলের সাহায্যে পানীয় জল পৌঁছে দেওয়ার কর্মসূচি শুরু করেন। লক্ষ্য স্থির করা হয়েছে ২০২৪ এর মধ্যে সারাদেশে ১০০ শতাংশ বাড়িতে নলের মাধ্যমে আর্সেনিকমুক্ত পানীয় জল পৌঁছে দেওয়া হবে। ইতিমধ্যেই তেলেঙ্গানা এই কর্মসূচিতে উল্লেখযোগ্য সাফল্য পেয়েছে। ৯৮ শতাংশ বাড়িতে নলের মাধ্যমে পানীয় জল পৌঁছে দিয়েছে তারা। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে গুজরাট, তারা ৭৩ শতাংশ বাড়িতে নলের মাধ্যমে জল পৌঁছে দিয়েছে। এমনকি পিছিয়ে পড়া রাজ্য বিহার ৪৩ শতাংশ বাড়িতে নলের সাহায্যে পানীয় জল পৌঁছে দিয়েছে। সেখানে পশ্চিমবঙ্গ মাত্র ১.৯৯ শতাংশ বাড়িতে পানীয় জল পৌঁছে দিয়েছে। সেই মুখ্যমন্ত্রী আবার বড়ো বড়ো কথা বলেন। বেঘোরে, সামান্য পরিষেবা না পেয়ে করোনা রোগি মারা যাচ্ছেন, আর দিদিমণি দাবি করছেন দেশের মধ্যে পশ্চিমবঙ্গ সেরা চিকিৎসা পরিষেবা দিচ্ছে। আবার ইংরেজিতে করোনা নিয়ে কবিতা লিখছেন।’

Related Articles

Back to top button
Close