fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

রাস্তা তৈরি করাকে কেন্দ্র করে কালনায় তৃণমূল ও বিজেপির সংঘর্ষ, আহত ৬

নিজস্ব সংবাদদাতা, কালনা: গ্রামের রাস্তা তৈরি করাকে কেন্দ্র করে তৃণমূল- বিজেপির সংঘর্ষের ঘটনা উভয়পক্ষের প্রায় ১৫ জন আহত হলেন পূর্ব বর্ধমানের কালনায়। মঙ্গলবার বেলা এগারোটা নাগাদ কালনা দু’নম্বর ব্লকের আনুখাল গ্রাম পঞ্চায়েতের কদম্বা গ্রামে ঘটনাটি ঘটে। আহতদের কালনা মহাকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

স্থানীয়সূত্রে জানা যায় যে, কালনার কদম্বা গ্রামে পঞ্চায়েতের পক্ষ থেকে একটি ঢালাই রাস্তা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। রাস্তাটি করতে গিয়ে দেখা যায় রাস্তার কিছুটা অংশ প্রাচীর দেওয়া অবস্থায় দখলীকৃত হয়ে রয়েছে। গ্রামের কয়েকজন দাবি তোলেন, প্রাচীর সরিয়ে দিয়ে রাস্তা নির্মাণ করা হোক। এই দাবি তোলেন বিজেপির কর্মী সমর্থকরাও।

তাদের অভিযোগ, গ্রাম পঞ্চায়েতের কর্মকর্তারা সেই দাবি না মেনে যেটুকু রাস্তা আছে তার উপরেই ঢালাই রাস্তা নির্মাণ করার কথা বলেন। এই নিয়ে দুই পক্ষের বিবাদের সূত্রপাত হয়। মঙ্গলবার সকালে উল্লেখিত রাস্তা নির্মাণের বালি ও পাথর পড়লে দুই তরফের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হয়।আর এই ঘটনার মধ্যে পড়ে উভয়পক্ষের মধ্যে কমবেশি ১৫ জন আহত হয়েছেন বলে জানা যায়।

এই বিষয়ে কালনা ২ ব্লকের তৃণমূলের ব্লক সভাপতি প্রণব রায় বলেন,‘পঞ্চায়েতের পক্ষ থেকে একটি ঢালাই রাস্তা নির্মানের কাজ শুরু হয়। যে রাস্তাটি তৈরি হচ্ছে সেই রাস্তার উপর দু একজনের বাড়ির কিছুটা অংশ পড়ছে।বাড়িগুলি শতাধিক বছরের পুরনো। আর এই নিয়েই বেশ কয়েকজন বিজেপি কর্মী সমর্থক বলে পরিচয় দিয়ে অশান্তি তৈরী করে। আমাদের ৬ জন গুরুতর আহত হয়েছেন।’

অন্যদিকে বিজেপি নেতা সুশান্ত পান্ডে বলেন, ‘বেআইনীভাবে রাস্তা নির্মানের কাজ চলছিল। সরকারীভাবে রেকর্ড থাকা সাত ফুট রাস্তার উপর অনেকেই দখল করে বসে আছেন। বিষয়টি পুলিশ প্রশাসনের নজরেও আনা হয়। তারপরেই গায়ের জোরে আজ সেই রাস্তা নির্মানের কাজ শুরু হয়। বিজেপি কর্মী সমর্থকরা তার প্রতিবাদ করতে তৃণমূলের লোকজন আমাদের কর্মীদের উপর চড়াও হয় মারধোর করে। তারা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

কালনার এক পুলিশ অফিসার জানান, এই ঘটনার তদন্ত চলছে। যদিও এখনো পর্যন্ত কেউ গ্রেফতার হয়নি।

Related Articles

Back to top button
Close