fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

গাইঘাটায় এক মেয়েকে কুপ্রস্তাব ঘিরে তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষ ও বোমাবাজি, আহত ৮

শ‍্যাম বিশ্বাস, উওর ২৪ পরগনা: এক মেয়েকে কুপ্রস্তাব ঘিরে তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষ ও বোমাবাজি। শনিবার ঘটনাটি ঘটেছে গাইঘাটা ফুলসরা গ্রাম পঞ্চায়েতের বকচারা পারুইপাড়া এলাকায়। ওই এলাকারই এক বিজেপি সমর্থকের মেয়েকে কুপ্রস্তাব দেয় এলাকার এক তৃণমূল সমর্থক। তার জেরেই উত্তপ্ত হয়ে উঠল এলাকা। শুরু হয় দুই পক্ষের সংঘর্ষ, বোমাবাজি। এতে আহত হয়েছে দু-পক্ষের কমপক্ষে আটজন সমর্থক। ঘটনাস্থলে যায় বিশাল পুলিশবাহিনী। এরপরই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আসে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার রাতে এক বিজেপি সমর্থকের মেয়েকে কুপ্রস্তাব দেয় এক তৃণমূল সমর্থক। এই খবর জানাজানি হতেই বিজেপি কর্মী সমর্থকরা চড়াও হয় তৃণমূল সমর্থকের বাড়ি। খবর পেয়ে সেখানে চলে আসে ওই এলাকায় তৃণমূল কর্মীরাও। শুরু হয়ে যায় সংঘর্ষ। রীতিমতো লাঠি-দা-কুড়ুল নিয়েও চলে মারামারি।

বিজেপির অভিযোগ, শাসকদলের কর্মীরা ব্যাপক বোমাবাজি করেছে এলাকায়। এলাকা থেকে দুটি বোমাও উদ্ধার করেছে পুলিশ। যদিও বোমাবাজির অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল। পুরো ঘটনায় দু-পক্ষের কমপক্ষে ৮ জন আহত হয়েছে। তাঁদের বনগাঁ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছে যায় গাইঘাটা থানার বিশাল পুলিশবাহিনী।

বিজেপির স্থানীয় পঞ্চায়েত সদস্য অপর্ণা মণ্ডলের অভিযোগ, তৃণমূল এই এলাকায় কার্যত সন্ত্রাস চালায়। প্রায়শই বিজেপি কর্মীদের মারধর করা হয়। মহিলাদের সঙ্গে অশ্লীল ব্যবহারও নতুন কিছুই নয়। অপরদিকে বনগাঁ-দক্ষিণ বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূল বিধায়ক সুরজিৎ কুমার বিশ্বাসের দাবি, তৃণমূলকর্মীরাই আক্রান্ত হয়েছেন। এলাকায় কোনও বোমাবাজি হয়নি। ঘটনার পর থেকে ওই এলাকায় টহল দিচ্ছে পুলিশ। এলাকা এখনও থমথমে। পুলিশ এই ঘটনায় বেশ কয়েকজনকে গ্রেফতার করেছে। এই ঘটনায় ওই এলাকায় চাপা উত্তেজনা রয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close