fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

ভোটার লিস্টের কাজে তৃণমূলের বিএলএ-রা গাফিলতি করছেন, অভিযোগ তুললেন তৃণমূলের নেতাই

প্রদীপ চট্টোপাধ্যায়, বর্ধমান: নির্দিষ্ট ত্রুটি ছাড়া কোনও ভোটারের নাম কোনভাবেই তালিকা থেকে বাদ দেওয়া যাবে না। নির্বাচন কমিশন এই নির্দেশিকা জারির পর কর্মীদের বাড়ি বাড়ি যাওয়ার নির্দেশ দেয় তৃণমূল নেতৃত্ব। তবে বাড়ি বাড়ি যাওয়াতো দূরের কথা উল্টে পূর্ব বর্ধমান জেলা তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক উত্তম সেনগুপ্ত দলের ‘বুথ লেভেল এজেন্ট ‘ অর্থাৎ বিএলএদের বিরুদ্ধে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ আনলেন। তিনি অভিযোগ করেছেন, “ ভাতার, জামালপুর ও রায়না বিধানসভা এলাকার বুথ গুলিতে ‘বুথ লেভেল এজেন্ট’ বা বিএলএ বসছে না।” যদিও বিজেপি নেতারা বলেছেন, ভোটার তালিকা সংক্রান্ত বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখার জন্যে জেলার ৯৮ শতাংশ বুথেই তাঁদের বিএলএ-রা থাকছেন।
কয়েক দিন আগে উত্তমবাবু দলের জেলা সভাপতি তথা মন্ত্রী স্বপন দেবনাথের কাছে অভিযোগ করেন, ‘ভাতার, রায়না ও জামালপুর বিধানসভায় তৃণমূলের বিএলএ-রা ক্যাম্পে আদৌ বসছে কিনা তা দলের নেতৃত্বের কাছেই ‘অজানা’ রয়ে গিয়েছে। এমনকী ওই তিনটে বিধানসভা থেকে বিএলএ-দের তালিকাও জেলা পার্টি অফিসে জমা পড়েনি বলে উত্তমবাবুর অভিযোগ।

তৃণমূল সূত্রে জানা গিয়েছে, ভোটার তালিকার বিষয়টি দেখভালের জন্য জামালপুরের দায়িত্বে রয়েছেন দলের কো-অর্ডিনেটর তথা প্রাক্তন বিধায়ক উজ্জ্বল প্রামাণিক। এছাড়া ভাতারের দায়িত্বে রয়েছেন বিধায়ক সুভাষ মণ্ডল। আর রায়নার দায়িত্বে রয়েছেন সেখানকার জেলাপরিষদ সদস্য উত্তম সেনগুপ্ত নিজেই। দলের বিএলএদের বিষয়ে উত্তমবাবু অবশ্য সংবাদ মাধ্যমকে কিছু জানাতে চাননি। তিনি শুধু বলেন, যা বলার দলের জেলা সভাপতিকেই তিনি জানিয়ে দিয়েছেন।

আরও পড়ুন: বাসস্থান রেকর্ডের দাবিতে মেদিনীপুরে ভূমি ও ভূমি সংস্কার দফতরে বিক্ষোভ ও ডেপুটেশন

জেলা সভাপতি তথা রাজ্যের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ জানিয়েছেন, “ওই তিনটে বিধানসভার নেতৃত্বের সঙ্গে কথা বলা হয়েছে। সমস্যা মিটে গিয়েছে।” তবে উত্তমবাবু এমন অভিযোগ তুললেও ভাতারের বিধায়ক সুভাষ মণ্ডল ও জামালপুরের ব্লক সভাপতি শ্রীমন্ত রায় বলেন অভিযোগ ঠিক নয়। শনি ও রবিবার হওয়া ক্যাম্পে সব জায়গাতেই বিএলএ-রা থাকছেন। বিএলএ-রা সঠিক ভাবেই দায়িত্ব পালন করেছেন।
“ জেলা বিজেপি নেতা সুনীল গুপ্তা স্পষ্ট জানিয়ে দেন, “জেলার প্রায় ৯৮ শতাংশ বুথে তাঁদের বিএলএ-রা বুথ লেভেল অফিসারের (বিএলও) সঙ্গে যোগাযোগ রেখে কাজ করছে।। ”

Related Articles

Back to top button
Close