fbpx
গুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

হুগলিতে ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট ও স্কুল শিক্ষিকার পর এবার করোনায় মৃত্যু তৃণমূল কাউন্সিলারের

তাপস মণ্ডল, হুগলি: চন্দননগরে ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট ও স্কুল শিক্ষিকার মৃত্যুর রেশ কাটতে না কাটতেই ফের কাউন্সিলারের মৃত্যুর ঘটনায় শোকের ছায়া নেমে এল শ্রীরামপুরে। বুধবার শ্রীরামপুর পুরসভার চার নম্বর ওয়ার্ডের বিদায়ী কাউন্সিলার পিনাকী ভট্টাচার্যের ওরফে গুন্ডা দা (৭০) মৃত্যু হয়। প্রায় একমাস পিনাকীবাবু কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। সেখানেই তার চিকিৎসা চলছিল।

তৃণমূল সূত্রে জানা গিয়েছে, করোনা পরিস্থিতিতে ত্রাণ বিলি করতে গিয়ে তিনি করোনা আক্রান্ত হন।

আরও পড়ুন:ধোঁয়াশায় ভবিষ্যৎ! GBU এর বিরুদ্ধে সরব পড়ুয়ারা

এই ঘটনার পর থেকেই তিনি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন। তার পরিবারের সদস্যরা কোভিডে আক্রান্ত হওয়ার পরও তারা সুস্থ হয়ে উঠেছেন। কিন্তু, পিনাকীবাবু কোভিডের সঙ্গে যুদ্ধ পরাজিত হয়েছেন বলে দলীয় সূত্রে খবর পাওয়া গিয়েছে। জানা গিয়েছে, এই পিনাকী ভট্টাচার্য রাজা রামমোহন রায়ের মামার বাড়ির বংশধর ছিলেন। পাশাপাশি পিনাকীবাবু শ্রীরামপুরের সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘনিষ্ট ব্যক্তি।

এদিন পিনাকী বাবুর মৃত্যুর ঘটনায় গভীর শোক প্রকাশ করেছেন তৃণমূলের নেতা কর্মীরা। পিনাকী ভট্টাচার্জের কথা বলতে গিয়ে শ্রীরামপুরের বিদায়ী পুরপ্রধান তথা প্রশাসক অমিয় মুখোপাধ্যায় বলেন, খুব দু:খের ঘটনা। পিনাকীবাবু হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গিয়েছেন। আমরা একজন একনিষ্ঠ কর্মীকে হারালাম।

 

Related Articles

Back to top button
Close