fbpx
হেডলাইন

দুর্নীতির অভিযোগে ২০০ জন দলীয় নেতা-নেএীকে শোকজ করলেন তৃণমূলের জেলা সভাপতি

মিলন পণ্ডা, (পূর্ব মেদিনীপুর): রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশের পর ত্রাণ দুর্নীতি নিয়ে গণ শো-কজ করল তৃণমূল কংগ্রেস জেলা সভাপতি। ২০০ জন তৃণমূল নেতাকে শোকজ করলেন তৃণমূল কংগ্রেস জেলা সভাপতি শিশির অধিকারী।

 

রাজ্যের পরিবর্তনের ক্ষেএে রাজনৈতিকভাবে পূর্ব মেদিনীপুরে নন্দীগ্রাম। রাজ্যের পালাবদলের ক্ষেত্রে অন্যতম আতুঁড় ঘর ছিল নন্দীগ্রাম। আমফান স্বজনপোষন নিয়ে পূর্ব মেদিনীপুর জেলার একাধিক অভিযোগ তুলেছে বিরোধী দল বিজেপি ও সিপিএম। এলাকায় তৃণমূল নেতা ও গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধানের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলে রাস্তার উপর কাঠের গুড়ি ফেলে বিক্ষোভ দেখায়।  তৃণমূল  পঞ্চায়েত সদস্য সহ এলাকার তৃনমুল নেতাদের বাড়িতে গিয়ে চড়াও হয়ে বিক্ষোভের সামিল হয় স্থানীয় বাসিন্দারা। শাসকদলের নেতাদের দীর্ঘদিন ধরে ক্ষোভ প্রকাশ করেছিল এলাকায় স্থানীয় বাসিন্দারা।

 

এমন পরিস্থিতি স্বাভাবিক করতে মাঠে নামল পূর্ব মেদিনীপুর জেলার  তৃণমূল  কংগ্রেস। দলের ভাবমূর্তি ফেরাতে একাধিক গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান থেকে শুরু করে পঞ্চায়েত সমিতির সদস্য, এমনকি বুথ কমিটির সভাপতি,  অঞ্চল কমিটির সভাপতি সহ প্রায় ২০০ জন নেতা নেত্রী সহ পদাধিকারী কর্মীদের শোকজ করেছে  তৃণমূল  কংগ্রেস জেলা সভাপতি শিশির অধিকারী। যদিও নন্দীগ্রামের  তৃণমূল  নেতাদের কয়েকদিনের মধ্যে উওর দিতে বলা হয়েছে। পূর্ব মেদিনীপুর  তৃণমূল  কংগ্রেস জেলা সভাপতি তথা কাঁথির সাংসদ শিশির অধিকারী বলেন, মুখ্যমন্ত্রী মিটিং-এ জানান, জেলার ২০০ জন  তৃণমূল  নেতাকে চিহ্নিত করে শোকজ করা হয়েছে। তাদের টাকা ফেরত দিতে বলা হয়েছে। অনেকে আবার টাকা ফেরত দিয়েছেন বলে শিশিরবাবু দাবি করেন।  তৃণমূল  নেতাদের জবাব নেওয়ার পর উপযুক্ত ব্যাবস্থা গ্রহন করবে দল।

Related Articles

Back to top button
Close