fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

মালদায় ফের প্রকাশ্যে তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব

মিল্টন পাল, মালদা,২০ সেপ্টেম্বর: বিধানসভা ভোট যত এগিয়ে আসছে তৃণমূলের গোষ্ঠী কোন্দল ততই প্রকাশ্যে আসছে। মালদার রতুয়ার তৃণমূল বিধায়কের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো ও ষড়যন্ত্রের কথা সভামঞ্চে দাঁড়িয়ে বলে বিতর্কর মুখে দাপুটে তৃণমূল নেতা মোহাম্মদ ইয়াসিন সেখ। রবিবার রতুয়ায় তৃণমূলের একটি যোগদান কর্মসূচিতেই দলীয় নেতা মহম্মদ ইয়াসিন শেখের এই বিতর্কিত মন্তব্যকে ঘিরে মালদায় ব্যাপক রাজনৈতিক শোরগোল পড়ে গিয়েছে।

জানা গিয়েছে, বুধবার সকালে চাঁচোল মহাকুমার রতুয়া স্টেডিয়াম এলাকায় একটি যোগদান কর্মসূচিতে বক্তব্য রাখতে গিয়ে স্থানীয় তৃণমূল নেতা তথা রতুয়া ১ ব্লক কমিটির সদস্য মহম্মদ ইয়াসিন শেখ বলেন, মিথ্যা মামলায় আমাকে জড়ানো হয়েছিল, কিন্তু তারপরও জেলে আমি স্বাচ্ছন্দ্যে ছিলাম। একটা সময় মাথা গরম করে লোকের সাথে গোলমাল করতাম ঠিকই, কিন্তু রতুয়া থানার বাহারালের মানুষ যেভাবে আমার পাশে দাঁড়িয়েছে তাতে আমি পাথর থেকে মোমে পরিণত হয়েছি। দলের বিধায়ক এখন ষড়যন্ত্র করছে আমাকে নাকি মিথ্যা মামলায় ফাঁসিয়ে পুলিশি লকআপে গুলি করে মারবে। তাতে আমি ভয় পাই না।  এই ষড়যন্ত্রের কথা আমার মোবাইলে রেকর্ডিং আছে। সভামঞ্চে দাঁড়িয়ে মাইকের মাধ্যমে দলের শয়ে শয়ে কর্মী-সমর্থকদের শুনিয়েছি। এদিনের সভা মঞ্চে দাঁড়িয়ে সরাসরি তৃণমূল দলের বিধায়কের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন রতুয়া ১ ব্লক কমিটির সদস্য তথা স্থানীয় তৃণমূল নেতা মহম্মদ ইয়াসিন সেখ।

এদিনের সভায় মঞ্চ থেকেই মোবাইলের একটি অডিও ক্লিপ জনগণের উদ্দেশ্যে শোনায় মহম্মদ ইয়াসিন শেখ। সেখানে রতুয়া তৃণমূল দলের বিধায়ক দলীয় নেতা ইয়াসিন শেখকে কিভাবে মারার চক্রান্ত করেছে , এমনকি দলের আরেক শ্রমিক সংগঠনের নেতা একটি বিতর্কিত মোবাইল রেকর্ডিং কয়েকশ কর্মী-সমর্থকদের সামনে তুলে ধরেন। আর তা নিয়ে সভামঞ্চের মধ্যেই তৃণমূল নেতাকর্মীদের ব্যাপক অসন্তোষ ছড়িয়ে পড়ে। এদিন প্রায় দুই হাজার ইমাম এবং মোয়াজ্জেমেরা বিভিন্ন দল ছেড়ে তৃণমূলে যোগদান করেন।

বক্তব্য রাখতে গিয়ে মহম্মদ ইয়াসিন শেখ বলেন, আমি কোন পদের লোভ করি নি। যারা সাদা পাঞ্জাবি পড়ে রাজনীতি করছেন তারা কোনদিনই অসহায় মানুষদের পাশে থাকেন নি। আমি তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জির দলের সৈনিক মাত্র। মানুষ আমাকে ভালোবাসে, তাই এদিন হাজার হাজার মানুষ স্টেডিয়ামের মাঠে ভিড় করেছেন। আর রতুয়া তৃণমূল দলের বিধায়ক কংগ্রেস ছেড়ে শাসক দলে যোগ দেওয়ার পর আমার বিরুদ্ধে নানা ধরনের ষড়যন্ত্র করছে।  আমাকে নাকি জেলে পুরে দিবে।  হিম্মত থাকলে এই কাজ করে দেখান। এর জবাব মানুষই দেবে।

তৃণমূল নেতা মহম্মদ ইয়াসিন শেখ আরও বলেন, যদি বিধানসভার নির্বাচনে যোগ্য প্রার্থী দাঁড়ায়, তাহলে জয়ী করাতে না পারলে মাথা ন্যাড়া করে রাজনীতি ছেড়ে দিব। রতুয়া তৃণমূল দলের বিধায়ক সমর মুখার্জি জানিয়েছেন, আমার বিরুদ্ধে দলেরকে কি অভিযোগ করেছে জানা নেই। তবে যারা কোনদিন রাজনীতি করে নি, খালি গুন্ডাগিরি করে এসেছে, তাদেরকে মানুষ কখনই পাত্তা দিবে না।

Related Articles

Back to top button
Close