fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

তৃণমূলের মিছিল নিয়ে গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের আঁচ দিনহাটায়

নিজস্ব সংবাদদাতা দিনহাটা: লক্ষ্য কেন্দ্র সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন। আর সেই আন্দোলন করতে গিয়ে প্রকাশ্যে চলে এল তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব। কেন্দ্র সরকারের বিভিন্ন নীতি ও বাংলার প্রতি বঞ্চনার প্রতিবাদে দিনহাটায় তৃণমূলের  প্রা রফের্থ মিছিলের আয়োজন করা হয়। কিন্তু এই মিছিলকে ঘিরে বিধানসভা ভোটের আগে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে চলে আসায় রাজনৈতিক মহলে ব্যাপক আলোড়ন ছড়িয়ে পড়ে।

মঙ্গলবার দুপুরে দলের তৃণমূলের মহকুমা কার্যালয় অলোক নন্দী ভবন থেকে তৃণমূল ও যুব তৃণমূলের যৌথ মিছিল বের হয়। সেই মিছিলে উপস্থিত ছিলেন তৃণমূল নেতা অসীম নন্দী, দিনহাটা দুই ব্লকের প্রাক্তন ব্লক সভাপতি মীর হুমায়ুন কবির, যুব তৃণমূলের দিনহাটা শহর ব্লক সভাপতি অজয় রায়, দিনহাটা দুই ব্লক সভাপতি আরিফ হোসেন, ছাত্র সংগঠনের প্রাক্তন জেলা সভাপতি সাবির সাহা চৌধুরী, দিলীপ রায় থেকে শুরু করে অনেকেই। এদিনের এই মিছিল থেকে কেন্দ্র সরকারের বিরুদ্ধে সরব হন কর্মী-সমর্থকরা।

এদিন এই মিছিলে কর্মী-সমর্থকদের উপস্থিতিও ছিল যথেষ্ট। অন্যদিকে এদিন বিকেলে দিনহাটা শহরের হেমন্ত বসু কর্ণার থেকে তৃণমূলের পক্ষ থেকে দিনহাটা শহরে পৃথক অন্য একটি মিছিল বের হয়। সেই মিছিলে উপস্থিত ছিলেন তৃণমূল নেতা উদয়ন ঘনিষ্ঠ বিশু ধর, প্রাক্তন কাউন্সিলর গৌরীশংকর মাহেশ্বরী, বিশ্বনাথ দে আমিন, বিষ্ণু সরকার, জয়দীপ ঘোষ, মৌমিতা ভট্টাচার্য সহ অনেকেই। একই ইস্যুতে এদিন শহরে পৃথক পৃথকভাবে মিছিলকে ঘিরে শাসকদলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে চলে আসে।
তৃণমূল নেতা অসীম নন্দী বলেন, দলের রাজ্য ও জেলা নেতৃত্বে ঘোষণা অনুযায়ী এদিন তারা নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী কেন্দ্র সরকারের বঞ্চনার বিরুদ্ধে দিনহাটায় মিছিল করেন। তিনি দলের দিনহাটা শহরের ব্লক সভাপতি হওয়ায় দিনহাটায় এদিন তার নেতৃত্বে মিছিল হয়েছে তাতে সর্বস্তরের কর্মী-সমর্থকরাও অংশ নেয়।

পাশাপাশি বিকালে যে মিছিল হয় তা কার্যত গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব কেই উসকে দেয়। তৃণমূল যুব দিনহাটা শহর ব্লক সভাপতি অজয় রায় বলেন, দলের সুপ্রিমো মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেছেন কেন্দ্র সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলনে নামার। সেই অনুযায়ী দলের রাজ্য নেতৃত্বে নির্দেশে এদিন দিনহাটা শহরেও তারা বিক্ষোভ মিছিল সংগঠিত করেন। আর সেই মিছিল দলের মহকুমা কার্যালয় থেকেই বের হয়। তবে বিকেলে কারা মিছিল করেছে তা তার জানা নেই।

অপর গোষ্ঠীর উদয়ন ঘনিষ্ঠ বিশু ধর বলেন, রাজ্য ও জেলার পাশাপাশি বিধায়কের নির্দেশে প্রতিটি ব্লকের পাশাপাশি এদিন দিনহাটা শহরেও বিক্ষোভ মিছিল সংঘটিত হয়। প্রত্যেকটা ব্লকে মিছিল হয়েছে। কেউ শহর থেকে মিছিল নিয়ে বের হয়েছে আবার কেউ ব্লক থেকে মিছিল শহরে নিয়ে এসেছে। সুতরাং গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের কোন প্রশ্নই নেই।

Related Articles

Back to top button
Close