fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

মালদায় কৃষি বিলের প্রতিবাদে তৃণমূলের বিক্ষোভ

মিল্টন পাল, মালদা: কৃষি বিল প্রত্যাহারের দাবিতে জেলা যুব তৃণমূল কংগ্রেসের জমিতে বসে বিক্ষোভ। ঘটনাটি মালদা থানার সাহাপুর এলাকায়। যতদিন এই বিল প্রত্যাহার না হবে ততদিন জেলা জুড়ে এই বিক্ষোভ চলবে। যদিও এই বিলে সুবিধা পাবে কৃষকেরা। এর মাঝে কোন দালাল বা ফোরেরা থাকবে না ফলে শাসক ঘনিষ্টরা কোন লাভ পাবে না। সেই কারনে বিক্ষোভ দেখাচ্ছে তৃণমূল কংগ্রেস। তবে লাভ হবে না দাবি বিজেপির।

যে কৃষি বিল নিয়ে আসা হচ্ছে তাতে ক্ষতি গ্রস্ত হবে কৃষকরা। জমিতে ফসল ফলিয়ে তারা কোথায় নিয়ে যাবে, কার কাছে যাবে কিভাবে বিক্রি করবে তাতে তারা দিসা হারা হবে। কিন্তুু অন্যদিকে এই বিল আসলে সরাসারি কৃষক তার জমিতে উৎপাদিত ফসল বাজারে বিক্রি করতে পারবে। তাতে উপকৃত হবে কৃষক। আর এই কৃষি বিল প্রত্যাহারের দাবিতে রাজ্যের সাথে মালদায় চাষের জমিতে বসে লাঙল নিয়ে বিক্ষোভ দেখান।

এক কৃষক মাধব মন্ডল বলেন, আগে ফোঁরেদের মাধ্যমে ফসল বিক্রি করতে হত। ফলে ন্যায মূল্য পাওয়া যেত না। এই যা বিল আসছে তাতে ন্যায মূল পাওয়া যাবে। নিজেদের উৎপাদিত ফসল নিজেরায় বাজারে বিক্রি করতে পারবো।

জেলা যুব তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতি প্রসেনজিৎ দাস বলেন, রাজ্য জুড়ে যে কৃষক বিরোধী বিল যে মোদি সরকার পার্লামেন্টে পাস করেছে। তাপর থেকে কৃষকদের যে অর্থনৈতিক দূরদশা সারা দেশের কৃষক বাংলা কৃষক তাদের নুনতম অধিকার হারাচ্ছে। কৃষকের ন্যায্য মূলের ফসলের দাম পাবে না। চাষিদের ওপর একটা নিয়ন্ত্রন করতে চাইছে কেন্দ্রীয় সরকার। কৃষকদেরকে পদে পদে মেরে ফেলার যে চক্রান্ত করছে বিজেপি সরকার করছে তার প্রতিবাদে আমরা এই আন্দোলন করছি। যে কালা বিল মোদি সরকার নিয়ে আসছে তাতে কৃষকদের আত্মহত্যা করতে বাধ্য করছে। আমাদের মূখ্যমন্ত্রী এর বিরুদ্ধে আন্দোলেনের ডাক দিয়েছি। সেই মত এদিন কৃষকদের জমিতে বসে আন্দোলন করছি।

মালদা জেলা বিজেপির সহ সভাপতি অজয় গাঙ্গুলী বলেন, কৃষকেরা যাতে ন্যায্য ফসলের মূল্য পাই। সেই কারনে এই বিল। মাঝে কেউ থাকবে না কৃষক সরাসরি নিজেদের উৎপাদিত ফসল নিজেরাই বাজার জাত করতে পারবে। কৃষি বিল নিয়ে বিরোধিতা করা মানে কৃষকদের বিরোধিতা করা। কারণ এই কৃষি বিল কৃষকদের দীর্ঘদিন ফরের হাত থেকে গোলামী করা থেকে মুক্তি দেবে। সুতরাং তৃণমূল যে কৃষক বিরোধী সবচেয়ে বড় এটাই প্রমাণ।

Related Articles

Back to top button
Close